যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা, স্ত্রী পলাতক

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ায় সাব্বির আহমেদ (৩৮) নামের এক যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। রোববার দিবাগত রাত তিনটার দিকে শহরের আড়ুয়াপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। সোমবার সকাল সাতটার দিকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই যুবকের মৃত্যু হয়। এ ঘটনার পর থেকে নিহত যুবকের স্ত্রী পলাতক।
সাব্বির আহমেদের স্বজনদের অভিযোগ, তাঁর স্ত্রী হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। সাব্বির আহমেদ আড়ুয়াপাড়া এলাকার মৃত রমজান আলীর ছেলে। তাঁর একাধিক ইজিবাইক আছে। তিনি ইজিবাইক ভাড়া দেওয়ার ব্যবসা করতেন। তাঁর অভিযুক্ত স্ত্রীর নাম রোজিনা খাতুন। এক মাস আগে রোজিনার সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। অভিযুক্ত রোজিনা তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী ছিলেন। তাঁর প্রথম স্ত্রী ঢাকায় থাকেন।
সাব্বিরের চাচাতো ভাই তামিম হোসেন বলেন, সাব্বিরের চিৎকার শুনতে পান। পর সাব্বিরের ঘরে গিয়ে তিনি দেখতে পান, সাব্বির রক্তাক্ত অবস্থায় কাতরাচ্ছেন। পরে তিনি ও পরিবারে লোকজন সাব্বিরকে দ্রুত উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাব্বিরের মৃত্যু হয়। তামিম হোসেনের দাবি, এ ঘটনার সঙ্গে সাব্বিরের স্ত্রী রোজিনা জড়িত। এ ঘটনার পর থেকে রোজিনা পলাতক।
কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন খান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ধারালো ছুরি দিয়ে সাব্বিরকে হত্যা করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। জড়িত ব্যক্তিদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

Post a Comment

Previous Post Next Post