ভেড়ামারায় ৯টি পুজা মণ্ডপে দুর্গাপূজা ॥ কুষ্টিয়া জেলায় ২৪৯ টি পুজা মণ্ডপ

বকুল কুমার দেবনাথ ॥ রং তুলির শেষ আঁচড় টেনে দেবী দুর্গাসহ সব প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ করেছেন কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা উপজেলায় ৯টি পুজা মণ্ডপের প্রতিমা কারিগররা। মণ্ডপ গুলোতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এদিকে শারদীয় দুর্গোৎসবকে ঘিরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে মণ্ডপ ও এর আশপাশের এলাকা গুলোতে বাড়ানো হয়েছে নজরদারী।
ভেড়ামারা উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এ বছর ভেড়ামারা উপজেলায় মোট ৯টি পূজা মণ্ডপে দুর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হবে। মণ্ডপ গুলোতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।
পূজা মণ্ডপের প্রতিমা শিল্পী বলেন, প্রতিমা তৈরীর কাজ শেষ হয়েছে। প্রতিমা আসনে উঠার অপেক্ষায় রয়েছে।
ভেড়ামারা জগৎ জননী মাতৃ মন্দিরের পুরোহিত বাম্পী ঠাকুর বলেন, ১ অক্টোবর মহাষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে শুরু হবে শারদীয় দুর্গোৎসবের মূল আনুষ্ঠানিকতা। মা দুর্গা এবার মর্তে আসছেন গজে, আর যাবেন নৌকায়। যা সবার জন্য মঙ্গল বয়ে আনবে। আমরা পূজার সব প্রস্ততি সম্পন্ন করেছি।
ভেড়ামারা জগৎ জননী মাতৃ মন্দিরের পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি গোপাল চন্দ্র পন্ডিত বলেন, ভেড়ামারা উপজেলার ৯টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এ অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে প্রতিটি মন্দিরে প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। প্রশাসনের পাশাপাশি আমরা স্বেচ্ছাসেবক রাখার ব্যবস্থা করেছি।
ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা বলেন, শারদীয় দুর্গোৎসবকে ঘিরে মণ্ডপ গুলোতে আনসার বাহিনীর পাশাপাশি পুলিশ মোতায়েন থাকবে। সেই সাথে টহল টিমও কাজ করবে। যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ প্রস্তুত রয়েছে।
কুষ্টিয়া জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এ বছর কুষ্টিয়া জেলার ২৪৯টি মণ্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব আয়োজন করা হচ্ছে। এর মধ্যে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ৮২টি, খোকসা উপজেলায় ৬৫টি, কুমারখালী উপজেলায় ৫৫টি, মিরপুর উপজেলায় ২৫টি, দৌলতপুর উপজেলায় ১৩টি এবং ভেড়ামারা উপজেলায় ৯টি পূজা মণ্ডপ রয়েছে।

Post a Comment

Previous Post Next Post