ভেড়ামারায় রক্সি পেইন্টের এরিয়া ম্যানেজারের বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার ॥ পরিবারের দাবী হত্যা

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় নিখোঁজের দুইদিন পর রক্সি পেইন্টের এরিয়া ম্যানেজার লোকমান হোসেনের (৩৮) বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (৩ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ভেড়ামারা সরকারি পাইলট মডেল হাইস্কুলের গলি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত লোকমান হোসেন বাগেরহাট জেলার সাইদুর রহমানের ছেলে। তিনি রঙ কোম্পানি রক্সি পেইন্টের কুষ্টিয়ার এরিয়া ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। কুষ্টিয়া শহরের চৌড়হাঁস মোড় এলাকায় তিনি বাসা ভাড়া নিয়ে পরিবারসহ বসবাস করতেন। তার পরিবারের দাবী লোকমান হোসেন কে খুন করেছে।
ভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান জানান, গত ১ আগস্ট দুপুরে রক্সি পেইন্টের এরিয়া ম্যানেজার লোকমান হোসেন ভেড়ামারা শহর থেকে নিখোঁজ হন। পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান না পাওয়ায় তার স্ত্রী জিনাত আরা টুম্পা ভেড়ামারা থানায় সাধারণ ডায়রি করেন। ভেড়ামারা থানার ডায়রি নং-৬৩ তাং-০২-০৮-২০২২ ইং। বুধবার সকালে স্থানীয়রা ভেড়ামারা সরবারি পাইলট মডেল স্কুলের গলির ড্রেনের পাশে বস্তাবন্দি মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পরে ভেড়ামারা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বস্তাবন্দি মরদেটি উদ্ধার করলে তার স্ত্রী সেটি শনাক্ত করেন।
ওসি মজিবুর রহমান আরো জানান, কারা, কী কারণে তাকে হত্যা করেছে এ বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
জিনাত আরা টুম্পা বলেন, আমার স্বামী রক্সি পেইন্টের এরিয়া ম্যানেজার লোকমান হোসেন কে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। হত্যাকারীদের গ্রেফতারসহ দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করছি।

Post a Comment

Previous Post Next Post