ভেড়ামারার হাউখালি-দৌলতপুরের চকমাদিয়া সড়কে কৃষকরা ধান রোপণ করছে

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার হাউখালি’র আখ সেন্টার থেকে দৌলতপুর উপজেলার পিয়ারপুর ইউনিয়নের চাকমাদিয়া সড়কের ২ কিলোমিটার রাস্তার বেহাল দশা। ভেড়ামারার হাউখালি’র আখ সেন্টার থেকে দৌলতপুর উপজেলার পিয়ারপুর ইউনিয়নের চাকমাদিয়া সড়কে কৃষকরা ধান রোপণ করছে। এলাকাবাসী স্থানীয় সংসদ সদস্য সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত ভাবে অবগত করার পরও মাত্র ২ কিলোমটিার রাস্তার কাজ আজও শুরু হয়েনি । এলাকাবাসী চরম দূর্ভোগের মধ্যে রয়েছে।
এলাকাবাসী অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার হাউখালি আখ সেন্টার থেকে দৌলতপুর উপজেলার পিয়ারপুর ইউনিয়নের চাকমাদিয়া সড়কের  চকমাদিয়া কুমারগাড়া থেকে গোরস্থান পর্ষন্ত মাত্র ২ কিলোমিটার রাস্তার বেহাল দশা। প্রতিনিয়িত এই রাস্তায় দূর্ঘটনা ঘটছে। ঝুকি নিয়ে এলাকাবাসী যাতায়ত করে থাকে। বর্তমান বর্ষার মধ্যে ঝুকিপূর্ন ২ কিলোমিটার রাস্তা পার হতে অনেক সময় লাগছে। বর্ষার মধ্যে  স্কুল ও কলেজ পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীরা চরম দূর্ভোগের মধ্যে দিয়ে যাতাযাত করে থাকে। অসুস্থ ও গর্ভবতী রোগীদেরে এই ২ কিলোমিটার ভাঙ্গা রাস্তা পার হতে দূর্ভোগের স্বীকার হতে হয়। প্রতিনিয়ত এই রাস্তার সাথে ১০ টি গ্রামের সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে।
ভ্যান চালক হুমায়ন বলেন, আমরা এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করে থাকি।  চকমাদিয়া কুমারগাড়া থেকে গোরস্থান পর্ষন্ত ভাঙ্গা রাস্তায় চলাচলের সময় ভ্যানের কোন না কোন ক্ষতি হবে। যাত্রীদের চাপাচাপির কারণে এই ভাঙ্গা রাস্তায় আমরা চলাচল করে থাকি।
আলহাজ্ব আঃ ওয়াহেদ বলেন, অসুস্থ্য ও গর্ভবতী রোগীদেরে এই ২ কিলোমিটার ভাঙ্গা রাস্তা পার হতে চরম দূর্ভোগের স্বীকার হতে হয়। দ্রুত রাস্তাটি সংস্কারের জন্য স্থানীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত ভাবে অবগত করেছি। এলাকাবাসীর একটাই দাবি রাস্তার কাজ দ্রুত করার জন্য।
পিয়ারপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সোহেল রানা বুলবুল বলেন, এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে স্থানীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যানসহ আমার কাছে রাস্তার ব্যাপারে অবগত করেছে। সংসদ সদস্য ও উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করে শীঘ্রই রাস্তার কাজ শুরু করবো।
 

Post a Comment

Previous Post Next Post