এ বছরেও শ্রেষ্ঠ শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান শামীম

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০২২ উপলক্ষে ভেড়ামারা সরকারি কলেজ ও পরবর্তীতে ভেড়ামারা উপজেলার কলেজ পর্যায়ের শিক্ষকদের মধ্য থেকে গতবারের ন্যায় এবছরও শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান শামীম। তিনি ভেড়ামারা সরকারি কলেজে ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান হিসেবে কর্মরত আছেন।
জানা যায়, তিনি বিভিন্ন ক্যাটেগরিতে একশো নম্বরের মধ্যে নব্বই পেয়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেন। মোস্তাফিজুর রহমান শামীম একাধারে একজন শিক্ষক, সঞ্চালক, লেখক, কলামিস্ট, সমাজ ও সাংস্কৃতিক কর্মী। তিনি ঢাকাস্থ ভেড়ামারা সমিতির শিক্ষা সচিবের দায়িত্বে আছেন। শিক্ষকতার পাশাপাশি তিনি সরকারি বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করে আসছেন সুনামের সাথে। পাবলিক পরীক্ষার ভিজিলেন্স টিমের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করে বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র নকলমুক্ত ও পরীক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরিতে দায়িত্ব পালন করেছেন। এটুআই কর্মসূচির ডিস্ট্রিক্ট অ্যাম্বাসেডর তিনি। সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতার বিচারকের দায়িত্ব পালন করছেন আট বছর যাবৎ।
তিনি বাংলাদেশ ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন এর কুষ্টিয়া চ্যাপ্টারের সভাপতির দায়িত্বে আছেন। তার চারটি থিসিস সহ অসংখ্য লেখালেখি রয়েছে। আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে তার বাবাকে নিয়ে লেখা একটি গল্প সমাদৃত হয়েছে, যা বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীদের পড়ানো হয়। মোস্তাফিজুর রহমান শামীম শিক্ষাকতা শুরু করেন ২০১২ খ্রীস্টাব্দে।  তিনি ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে ইংরেজি সাহিত্যে স্নাতক ও ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ টিচিং এ স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করাও পরেও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে স্নাতক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএসএস ডিগ্রী অর্জন করেছেন।
শ্রেষ্ঠ শিক্ষক হওয়ার অনুভূতি জানিয়ে মোস্তাফিজুর রহমান শামীম বলেন, ছোটবেলা থেকে প্রথম হওয়ার ইচ্ছা বা নেশা কোনোদিনও আমার মধ্যে ছিল না। আমি সবসময় চেষ্টা করি মানুষের মন জয় করতে ও আমার দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে। কাজকে ভালোবাসি, পেশাকে শ্রদ্ধা করি। শ্রেষ্ঠ শিক্ষক হওয়ায় যাদের অবদান সবচেয়ে বেশি, তারা আমার শিক্ষার্থী।

Post a Comment

Previous Post Next Post