Header Ads

৭ শত লিটার সোয়াবিন তেল বাজার দামে বিক্রি করলেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর


মোশারফ হোসেন ॥ কুষ্টিয়া কুমারখালী পৌর বাজারে প্যাকেট ও বোতলজাত  সয়াবিন তেলের সরকার নির্ধারিত দামের চাইতেও বেশী মূল্য তেল বিক্রির দায়ে ৭ শ' লিটার রুপ চাঁদা    তেল। মাইকিং করে সাধারণ মানুষের মাঝে বিক্রি করলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কুষ্টিয়া জেলা কার্যলয় ।
 
কুমারখালী ট বাজারে বাদশা ষ্টোরে অভিযান পরিচালনা করা হয় এই সময় কুমারখালী বড় মসজিদ গলির গোডাউনে মজুদ রাখা   ৭ শ' লিটার রুপ চাঁদা প্যাকেট সয়াবিন তেল তাৎক্ষণিক  সাধারণ মানুষের মাঝে  ১ শ' ৬০ টাকা দরে বিক্রি করা হয়। কুমারখালী পৌরসভার (ট) বাজার এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়েছে। অভিযানের নেতৃত্বে ছিলেন সুচন্দন মন্ডল সহকারী পরিচালক জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর কুষ্টিয়া। এ সময় তাঁকে সহযোগিতা করেন কুষ্টিয়া পুলিশের একটি দল।
এ সময় সয়াবিন তেল বেশি দামে বিক্রি করার অপরাধে বাদশা ষ্টোরের মালিক বাদশা কে  ১৫ হাজার টাকা জরিমানা  করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কুষ্টিয়া, সহকারী পরিচালক বলেন, নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত দামে সয়াবিন তেল বিক্রির দায়ে কুমারখালীতে ১ টি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা ও গোডাউনে থাকা ৭ শ' লিটার সয়াবিন তেল সাধারণ মানুষের মাঝে ১ শ' ৬০ টাকা দরে বিক্রি করা  হয়েছে।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সুচন্দন মন্ডল  আরও বলেন,  জেলায় দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রনে বাজার তদারকির কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ অভিযান চালানো হয়েছে। পাশাপাশি অতিরিক্ত দাম রাখায় তাৎক্ষণিক ক্রেতাদের টাকা ফেরতের ব্যবস্থা করা হয়। তেলের দাম কে সামনে রেখে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের বাজার মূল্য নিয়ন্ত্রনে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। এ সময়   দোকান কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এ আদেশ অমান্য করা হলে তাঁদের বিরুদ্ধে সরাসরি আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

No comments

Powered by Blogger.