Header Ads

দৌলতপুরে জাসদ যুবজোট নেতা সালামকে হাত-পায়ের রগ কেটে খুন ॥ আটক ১


চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে জাসদ জাতীয় যুব জোটের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব খান সালামকে (৩৫) হাত-পায়ের রগ কেটে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় সন্ত্রাসীরা সালামের সহযোগী মামুনকেও ছুরিকাঘাত করে। বুধবার (১১ মে) রাত ১১টার দিকে দৌলতপুর উপজেলার আল্লারদরগা বয়ান মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মাহবুব খান সালাম দৌলতপুর উপজেলার আমদহ গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে। নিহত মাহবুব খান সালাম জাসদের জাতীয় যুব জোটের দৌলতপুর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক। বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। স্থানীয়রা মারাত্মক জখম অবস্থায় সালাম ও মামুনকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১টা ২০ মিনিটে মাহবুব খান সালাম মারা যান।
হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান, মাহবুব খান সালামের শরীরে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। হাত-পায়ের সমস্ত রগ কেটে ফেলা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী আহত মামুন জানান, তিনিসহ দৌলতপুর উপজেলা জাসদ জাতীয় যুব জোটের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব খান সালাম ও আরো একজন ভ্যানযোগে আল্লারদরগা বয়ান মোড়ে পৌঁছালে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী তাদের ওপর হামলা চালায়। সন্ত্রাসীরা সালামের হাত পায়ের রগ কেটে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে।
এ ব্যাপারে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবীদ হাসান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত রয়েছে এবং হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনাকে কেন্দ্র করে দৌলতপুর উপজেলায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
জাতীয় যুব জোটের সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন ও সাধারণ সম্পাদক শরিফুল কবির স্বপন এক বিবৃতিতে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত সালামের প্রতি গভীর শোক এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন। তারা বলেন, মাহবুব খান সালাম ছিলেন প্রতিবাদী ও স্পষ্টবাদী। তারা অবিলম্বে সালামের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবি জানান।

No comments

Powered by Blogger.