Header Ads

চিকিৎসক হবার মনোবাঞ্চা পুরণ হলো সাদিয়ার

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কঠোর অধ্যাবসায় আর অদম্য ইচ্ছাশক্তিকে কাজে লাগিয়ে স্বপ্ন জয় করেছে সাদিয়া সুলতানা। ছোট থেকেই স্বপ্ন ছিল চিকিৎসক হওয়ার। সেই স্বপ্নের দারপ্রান্তে পৌঁছে গেছে অদম্য এই শিক্ষার্থী।
সম্প্রতি দেশের সরকারি-বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে। ফলাফলে মোছা. সাদিয়া সুলতানা মেধা তালিকায় ১হাজার ২৭৬ স্থান অর্জন করে  কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে।
জানা যায়, কুষ্টিয়ার মিরপুর নাজমুল উলুম সিদ্দিকীয়া ফাজিল মাদ্রাসার বাংলা বিভাগের প্রভাষক মো. ছাইদুর রহমানের মেয়ে মোছা. সাদিয়া সুলতানা। কৃতি এই শিক্ষার্থী ছোট থেকেই তার মেধার স্বাক্ষর রেখেছে। সে ২০১৩ সালে স্থানীয় দারুস সালাম একাডেমি থেকে জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়। একই ধারাবাহিকতায় ২০১৬ সালে বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে জেএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়ে কৃতিত্বের পুনরাবৃত্তি ঘটায়।
সাদিয়া সুলতানা ২০১৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় একই বিদ্যালয় থেকে জিপিএ-৫ পায়। ২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় রাজশাহীর নিউ গভঃ ডিগ্রি কলেজ থেকেও জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়।  
সাদিয়ার বাবা মিরপুর নাজমুল উলুম সিদ্দিকীয়া ফাজিল মাদ্রাসার বাংলা বিভাগের প্রভাষক মো. ছাইদুর রহমান মেয়ের এমন কৃতিত্বে উচ্ছসিত।
তিনি বলেন, ছোটবেলা থেকেই সাদিয়া লেখাপড়ায় অনেক মনোযোগী। পড়াশোনার বাইরে সে কিছু চিন্তায় করতে পারে না। ছোট থেকেই সাদিয়ার ইচ্ছে ছিল চিকিৎসক হওয়ার। সেই স্বপ্ন পুরন হতে চলেছে।
তিনি আরও বলেন, তার কৃতিত্বে আমরা সবাই গর্বিত। আশা করি ভবিষ্যতে তার এই সাফল্য ধরে রাখবে।
প্রসঙ্গত, গত ৫ এপ্রিল দেশের সরকারি-বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়। ফলাফলে এবছর ৭৯ হাজার ৩৩৭ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। যা পরীক্ষায় অংশ নেওয়া মোট শিক্ষার্থীর ৫৫ দশমিক ১৩ শতাংশ। এদের মধ্যে মেয়ে ৪৪ হাজার ৫০৪ জন এবং ছেলে ৩৪ হাজার ৮৩৩ জন।

No comments

Powered by Blogger.