Header Ads

জমিজমার বিরোধের জেরে সংঘর্ষে আহত ১ জনের মৃত্যু

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে জমিজমার বিরোধের জেরে আহত জাহাঙ্গীর আলম টুটুল মারা গেছেন। রোববার চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। নিহত জাহাঙ্গীর আলম টুটুল প্রাগপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর এলাকার রুহুল আমিনের ছেলে।
গত বুধবার উপজেলার আদাবাড়ীয়া ইউনিয়নে জমিজমার বিরোধের জেরে দুপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় দুজন আহত হয়। ঘটনার পরদিন বৃহস্পতিবার দৌলতপুর থানায় মামলা হয়। মামলার পর জালাল নামের একজনকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠায় পুলিশ।
নিহতের পরিবার ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার আদাবাড়ীয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাকির কাছে জমিজমার বিষয়ে মীমাংসার জন্য ৭ নম্বর ওয়ার্ডের জফের শাহের ছেলে মনিরুল ইসলাম (৪৬) বাদী হয়ে আবেদন করে। পরে উভয় পক্ষকে লোকজন নিয়ে বুধবার দুপুরে ইউনিয়ন পরিষদের এজলাস বসে। একপর্যায়ে দুপক্ষের ঝগড়ায় সালিস বন্ধ করে দেন চেয়ারম্যান। পরে উভয় পক্ষের লোকজন ইউপি কার্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে বাদী পক্ষের লোকজন হামলা চালায়।
এতে বাদী পক্ষের ছুরিকাঘাতে রুহুল আমিনের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম টুটুল ও জাহাঙ্গীর আলমের চাচাতো ভাই গোলাম রহমানের ছেলে লিপ্টন হোসেন তোতা আহত হয়। এ ঘটনায় আহত টুটুল কে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থা আজ মারা গেছে।’
দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম জাবীদ হাসান বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে গত বুধবার দুপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় দুজন আহত হয়। এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার থানায় মামলা হয়েছে। এরপর ১ জনকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার তদন্ত চলছে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকায় একজন মারা গেছেন।

No comments

Powered by Blogger.