Header Ads

সেলফি তুলতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো স্কুলছাত্র

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় ব্রিজ থেকে নদীতে পড়ে এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে কয়া রেলওয়ে ব্রিজের উপরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত স্কুলছাত্রের নাম সামি হোসেন (১৫)। সে কুমারখালী উপজেলার নন্দলালপুর ইউনিয়নের এলঙ্গীপাড়া গ্রামের হারুনের ছেলে এবং স্থানীয় এমএন উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র ছিলো। খুলনা থেকে ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে এসে কয়েক ঘণ্টার চেষ্টায় শুক্রবার রাত ১০টার দিকে গড়াই নদী থেকে ওই স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করে।
সামির চাচা আরিফুল জানান, কয়া রেলওয়ে ব্রিজের উপর চার বন্ধু একই এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে তুহিন (১৪) রিপন শেখের ছেলে বাধন (১৩) ও আলমগীর হোসেনের ছেলে রাজ্জাক (১৫) মোবাইলে সেলফি তোলার সময় হটাৎ করেই ট্রেন চলে আসে। এসময় সামি ট্রেনের ধাক্কায় গড়াই নদীতে পড়ে যায়। পরবর্তীতে কুমারখালী থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে কয়েক ঘণ্টাব্যাপী সামির খোঁজ করেও ব্যর্থ হয়। পরে খুলনা থেকে ডুবুরি দল এসে কয়েক ঘণ্টা চেষ্টার পর রাত ১০টার দিকে গড়াই নদী থেকে মৃত অবস্থায় ছামিকে উদ্ধার করে।
কুমারখালী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পরিদর্শক বখতিয়ার উদ্দিন জানান, ব্রিজ থেকে ছেলেটি নদীর যে স্থানে পড়ে সেখানে পানি অনেক গভীর হওয়ার কারণে মরদেহ উদ্ধারে সময় লেগেছে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, খুলনা থেকে আসা ডুবুরি দল এসে রাত ১০টার দিকে গড়াই নদী থেকে ওই স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে।

No comments

Powered by Blogger.