Header Ads

সাবেক এমপির বাড়িতে বোমা হামলার মামলায় ২ আসামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের সাবেক এমপি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আফাজ উদ্দীনের বাড়িতে বোমা হামলা চালিয়ে দুজনকে হত্যার মামলায় দুই আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।  মঙ্গলবার বিকালের দিকে দণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামির উপস্থিতিতে কুষ্টিয়ার বিশেষ দায়রা ও জজ আদালতের বিচারক আশরাফুল ইসলাম এই রায় প্রদান করেন।
দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার গোপীনাথপুর গ্রামের শাহাদাৎ আলীর ছেলে জাহিদুল ইসলাম ওরফে বোমা জাহিদ (৫৪) এবং একই উপজেলার চামনাই গ্রামের মৃত বিদ্যান আলীর ছেলে জামিরুল ইসলাম ওরফে মরু (৪৮)। ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা না থাকায় এই মামলার অন্য চার আসামিকে খালাস প্রদান করা হয়।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালের নভেম্বর মাসের ১৩ তারিখে রাত সাড়ে ৮টার দিকে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য আফাজ উদ্দিন তাঁর বসার ঘরে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করার সময় বোমা হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এই ঘটনায় ঘটনাস্থলেই দুজন মারা যায় এবং আফাজ উদ্দিনসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। এই ঘটনায় ওই দিনই আফাজ উদ্দিনের ছেলে এজাজ আহাম্মেদ মামুন বাদী হয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৪ থেকে ৫ জনের নামে দৌলতপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
এই মামলার দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের ৩ মার্চ তারিখে আদালতে চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। পরে দীর্ঘ শুনানি শেষে আজ মঙ্গলবার এই মামলার রায় প্রদান করেন বিজ্ঞ আদালত।
কুষ্টিয়া জজ আদালতের পিপি অনুপ কুমার নন্দী জানান, এটি একটি আলোচিত হত্যাকাণ্ড ছিল। সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আজ আদালত দুই আসামির যাবজ্জীবন এবং ৪ আসামিকে বেকসুর খালাস প্রদান করেন। 

No comments

Powered by Blogger.