Random Posts

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের মাথায় ওঠা যুবক আটক ॥ ৩ পুলিশ সদস্য ক্লোজড

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের ওপরে উঠে বসে থাকা যুবককে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে কুষ্টিয়া শহরের পাঁচ রাস্তার মোড়ে ওই যুবক বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের  ওপরে ওঠে। পরে স্থানীয়রা টাকা দেওয়ার কথা বলে তাকে নিচে নামান। বিষয়টি নিয়ে নানা সমালোচনা চলছে। সন্ধ্যার দিকে ওই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় শনিবার রাতে তিন পুলিশ সদস্যকে ক্লোজড করা হয়েছে। কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
স্থানীয়রা বলেন, বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী এক যুবক বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের প্রতিকৃতি, ৭ মার্চের ভাষণের প্রতিকৃতি এবং ছয় দফা দাবি আন্দোলনের বঙ্গবন্ধুর তিনটি ভাস্কর্য বেয়ে ওপরে ওঠে দাঁড়িয়ে ও বসে থাকে। স্থানীয়রা তাকে টাকা দেখালে তিনি নিচে নেমে আসেন এবং শহরের ভেতর চলে যান। পরে উপস্থিত অনেকেই ওই ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দিলে তা ভাইরাল হয়ে যায়। পুলিশের উপস্থিতিতে এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, ২০২০ সালের ৪ ডিসেম্বর কুষ্টিয়া শহরের পাঁচ রাস্তার মোড়ে রাত ২টা ১৬ মিনিটে দুই মাদরাসাছাত্র হেঁটে নির্মাণাধীন বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যস্থলে আসেন। এরপর ভাস্কর্যের গা ঘেঁষে থাকা মই বেয়ে ওপরে উঠে পিঠে থাকা ব্যাগ থেকে হাতুড়ি বের করে প্রথমে বঙ্গবন্ধুর হাতের উঁচু তর্জনীতে আঘাত করেন। হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করে করে ভাস্কর্যের হাত ও পরে মুখের অংশে ভাঙচুর করেন। এরপর থেকে সেখানে সার্বক্ষণিক পুলিশের একটি টিম দায়িত্ব পালন করে আসছে।
শনিবার দায়িত্বরত টিমের নেতৃত্বে ছিলেন এএসআই বিকাশ। তিনি বলেন, আমি দুপুরের খাবার খেতে গিয়েছিলাম। এ সময় একজন বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য বেয়ে ওপরে ওঠে। পরে স্থানীয়রা টাকা দেয়ার কথা বললে সে নেমে আসে এবং পালিয়ে যায়। পুলিশের টিম সবসময়ই ডিউটি করে। আমার নেতৃত্বে পুলিশের সদস্য প্রদীপ ও মহিদুল দায়িত্বে ছিলেন। কিন্তু তারা বিষয়টি বুঝতে পারেননি।
কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাব্বিরুল আলম বলেন, এ ঘটনায় ওই যুবককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
কুষ্টিয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্যকে ক্লোজড করা হয়েছে। তারা ঘটনার সময় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যস্থলে দায়িত্বে ছিলেন। বিষয়টি তদন্ত করে অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Post a Comment

0 Comments