বেপরোয়া ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় ১দিনে কুষ্টিয়ায় এবার শিশুসহ নিহত-৩

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ বেপরোয়া ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় ১দিনে কুষ্টিয়ায় এবার শিশুসহ ৩ জন নিহত হয়েছে।
কুষ্টিয়ায় এবার ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় অনিক (৮) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কের লাহিনী বটতলা শাহপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত অনিক একই এলাকার আক্কার শাহের ছেলে।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে অনিক তার বাড়ির সামনে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে ছিল। এমন সময় কুষ্টিয়া বড়বাজার থেকে ছেড়ে আসা ড্রাম ট্রাকটি লাহিনী বটতলা শাহপাড়া এলাকায় পৌঁছালে ড্রাম ট্রাক শিশুটিকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় স্থানীয়রা ড্রাম ট্রাকটি আটকে ভাঙচুর চালায় ও চালককে ধরে গণধোলাই দেয়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা শিশুটিকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
কুষ্টিয়া মডেল থানার (ওসি) সাব্বিরুল আলম জানান, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ড্রাম ট্রাক ও চালককে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ নিয়ে আসেননি। অভিযোগ পেলেই মামলা নেওয়া হবে।
অপরদিকে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বিত্তিপাড়া এলাকায় ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় ব্যাটারিচালিত ভ্যানের দু’জন নিহত হয়েছেন। গুরুতর আহত হয়েছেন দু’জন। শনিবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার জামজামি এলাকার বাসিন্দা সলেমান (৪৫) ও ঝিনাইদহ জেলার উসমান আলী (৬০)। আহত দু’জনের পরিচয় জানা যায়নি।  
জানা গেছে, দুপুরের দিকে কুষ্টিয়ার ঝাউদিয়া পকেট রোড থেকে তিনজন যাত্রী নিয়ে একটি ভ্যান মহাসড়কে উঠছিল। এ সময় ঝিনাইদহ থেকে কুষ্টিয়াগামী একটি ড্রাম ট্রাক ভ্যানটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই সলেমান নিহত হন এবং আহত হন তিনজন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আহতদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় উসমানের মৃত্যু হয়।  
এ তথ্য নিশ্চিত করে কুষ্টিয়া চৌড়হাস হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইদ্রিস আলী জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে সলেমানের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় চালককে আটকসহ ড্রাম ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে।
এ নিয়ে গত ছয় দিনে জেলাটিতে ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় পৃথক স্থানে ১০ জনের প্রাণ গেল।

Post a Comment

Previous Post Next Post