কুষ্টিয়ায় ইউপি নির্বাচনে হামলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী আহত ও ব্যাপক সংঘর্ষ ॥ আহত- ১০

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বটতৈল ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুর থেকে শুরু হয়ে সন্ধ্যা পর্ষন্ত বটতৈল ইউনিয়নের দোস্তপাড়া বাজারে এই ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কয়েকজন সমর্থককে নিয়ে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মিজানুর রহমান ওরফে মিন্টু ফকির মোটরসাইকেলে করে নির্বাচনী প্রচারে বের হন। তাঁরা দোস্তপাড়া বাজারে পৌঁছালে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোমিন মণ্ডলের কর্মী-সমর্থকেরা তাঁদের ওপর হামলা চালান। এই খবর ছড়িয়ে পড়লে মিজানুরের কর্মী-সমর্থকেরা জড়ো হয়ে পাল্টা হামলা চালালে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ লাগে। এতে মিজানুর রহমানসহ দুই পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহত বাকিদের নাম প্রাথমিকভাবে জানা যায়নি।
এই ঘটনার পর আহত মিজানুর রহমানের কর্মী-সমর্থকেরা ক্ষুব্ধ হয়ে কুষ্টিয়া-চুয়াডাঙ্গা আঞ্চলিক মহাসড়ক অবরোধ করেন। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় তাঁরা বিক্ষোভ মিছিল করে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোমিন মণ্ডলের গ্রেপ্তারের দাবি জানান। পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে তাঁদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।
এ বিষয়ে জানার জন্য আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোমিন মণ্ডলের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ধরেননি।
কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাব্বিরুল আলম বলেন, ঘটনাস্থলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি আপাতত নিয়ন্ত্রণে আছে। তবে উভয় পক্ষের লোকজন দুই দিকে অবস্থান নিয়েছেন।

Post a Comment

0 Comments