ভেড়ামারায় গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার ॥ ধর্ষক রনি আটক

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মামা শ্বশুর কর্তৃক এক সন্তানের জননী কে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ধর্ষক রনি (৩৮) কে গ্রেফতার করেছে ভেড়ামারা থানা পুলিশ। ধর্ষক রনি উপজেলার রনপিয়া ( পশ্চিমপাড়া) এলাকার নবীর উদ্দীনের পুত্র। তার বিরুদ্ধে ভেড়ামারা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ৯(১), পেনাল কোডে মামলা রুজু হয়েছে।
জানা যায়, মামা শ্বশুর রনি দীর্ঘদিন ধরে এক সন্তানের জননী ওই গৃহবধূ কে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। গৃহবধূর স্বামী দুবাই প্রবাসী হওয়াই প্রায়ই এই সুযোগ নিতো লম্পট মামা শ্বশুর রনি। তার এই অনৈতিক কু-প্রস্তাবে সে রাজি না হলে সুযোগ সন্ধানী মামা শ্বশুর সুযোগের অপেক্ষায় প্রহর গুনতে থাকে। এর এক পর্যায়ে গত ১৬-১০-২১ইং তারিখ আনুমানিক সন্ধ্যা ৬ টার দিকে গৃহবধূর নিজ বাড়িতে পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা না থাকায় রনি জোপ বুঝে কোপ মারার কু-বুদ্ধি আটে । এই সুযোগে মামা শ্বশুর রনি গৃহবধূর শয়ন কক্ষে প্রবেশ করে জোরপূর্বক ধর্ষক করে পালিয়ে যায়। ধর্ষনের শিকার গৃহবধূ  এই ঘটনায় ভেড়ামারা থানায় অভিযোগ দায়ের করে।
অভিযোগ দায়েরের পরপরই কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার খায়রুল আলম এর নির্দেশনায় এবং ভেড়ামারা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইয়াছির আরাফাত এর সঠিক তত্বাবধানে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মজিবুর রহমান এর নেতৃত্বে এসআই মুহিদুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ এক অভিযান পরিচালনা করেন। থানা পুলিশের অভিযানিক চৌকস টিমটি সোমবার দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার ধরমপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ ভবানীপুর এলাকা থেকে ধর্ষক রনি কে গ্রেফতার করেন।
ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মজিবুর রহমান জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী রনি ধর্ষণের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। আসামি রনিকে মঙ্গলবার  দুপুরে  বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Post a Comment

0 Comments