চোর সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি ॥ পুলিশসহ আহত ৪

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে চোর সন্দেহে স্বপন (২৫) নামের এক যুবককে গণপিটুনি দিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসী। এসময় স্থানীয়দের ছত্রভঙ্গ করতে গিয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শকসহ (এসআই) চারজন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলামসহ ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টায় মিরপুর উপজেলার আমলা ইউনিয়নের কচুবাড়িয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মস্তফা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। গণপিটুনিপ্রাপ্ত যুবক স্বপন ভেড়ামারা উপজেলার ফারাকপুর এলাকার সামসুল হকের ছেলে।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি জানান, প্রায় দীর্ঘ দিন ধরেই আমলা ইউনিয়নের কচুবাড়িয়া এলাকার মাঠের কৃষকদের বৈদ্যুতিক সেচ পাম্প (মোটর) চুরি হচ্ছিলো। বুধবার ৪-৫ জন মোটর চুরি করতে গেলে গ্রামবাসী তাদের ধাওয়া দেয়। এরপর তাদের মধ্য থেকে স্বপনকে আটক করে স্থানীয়রা। চোর ধরা পড়েছে এমন সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে গ্রামবাসী জড়ো হলে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করলে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশের এসআই হাফিজুর রহমান, এএসআই কামরুজ্জামান কনেস্টবল জামিরুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম আহত হন। এ ঘটনায় পুলিশ স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলামসমহ ৫ জনকে আটক করে।
ওসি আরও জানান, আহত পুলিশ পুলিশ কনেস্টবল জামিরুল ইসলাম মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Post a Comment

0 Comments