অস্ত্রসহ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আটক

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ায় অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে রাসেল হোসেন আরজু (৩৬) নামে এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও ইউপি নির্বাচনের চেয়ারম্যান প্রার্থীকে আটক করেছে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে বিদেশি পিস্তল, গুলি ও জাল টাকা উদ্ধার করা হয়।  রাসেল হোসেন আরজু কুমারখালী উপজেলার কয়া ইউনিয়নের গট্টিয়া এলাকার ইব্রাহিমের ছেলে। তিনি উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও আসন্ন কয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের চেয়ারম্যান প্রার্থী।
র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, র‌্যাব-৬ ঝিনাইদহ ক্যাম্পের একটি অভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুমারখালী উপজেলার কয়া ইউনিয়নের কয়া কলেজ সংলগ্ন এলাকায় অভিযানে যায়। এ সময় আরজুর কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি ও নগদ ৫০ হাজার জাল টাকা উদ্ধার করে।
র‌্যাব আরও জানায়, আরজু দীর্ঘ দিন ধরে এলাকায় চরমপন্থী সিন্ডিকেটের নেতা হিসেবে একটি সন্ত্রাসী বাহিনী পরিচালনা এবং মাদক সিন্ডিকেট পরিচালনা করে আসছিল।
র‌্যাব-৬ ঝিনাইদহ ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর শরিফ বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে বিদেশি পিস্তল, গুলি ও জাল টাকাসহ রাসেল হোসেন আরজুকে আটক করা হয়েছে। আরজুকে আটকের পর সাক্ষীর জন্য নাম-ঠিকানা লেখার সময় প্রায় ৮-১০টি মোটরসাইকেল করে আরজুর লোকজন র‌্যাবের ওপর হামলা চালায়। তারা গাড়ি ভাঙচুর করে বেশ কয়েকটি ককটেল বোমা নিক্ষেপ করেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য র‌্যাব-৪ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। পরে আরজুকে আটক করে ক্যাম্পে নিয়ে আসা হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আরজুর বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

Post a Comment

0 Comments