মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

মোশারফ হোসেন,কুমারখালী  ॥ কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার  শিলাইদহ ইউনিয়নে  ২৫ জুলাই সন্ধ্যায় খদ্দোবন  গ্রামের স্বামীর বসতঘর থেকে  গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
এই মৃত্যু কে কেন্দ্র করে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে ১ আগষ্ট রবিবার দুপুরে গড়াই কমপ্লেক্সে হত্যা মামলার আসামি মোঃ তোফাজ্জেল হোসেন এর চাচাতো ভাই মোঃ বেলাল হোসেন এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমার ভাইয়ের স্ত্রী শাবানা খাতুন (২৪ ) পিতা- মোশারফ হোসেন সাং- বেলঘরিয়া শিলাইদহ, কুমারখালী।
 গত ২৫ জুলাই সন্ধ্যায় সময় খোদ্দবনগ্ৰাম তাহার নিজ স্বামীর বাড়িতে পারিবারিক কলহের জের ধরে তাহার নিজ সয়ন কক্ষে ডাবের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। পাশের বাড়ির মোছাঃ জাহিদা খাতুন বিষয়টি জানিতে পারিয়া আশপাশের লোকজনকে জানালে পাশের বাড়ির মোঃ রফিকুল ইসলাম লাশটি গলা পেঁচানো ওড়না কাটিয়া লাশটি নীচে নামিয়ে আনে। এই সময় আমার ভাইয়ের স্ত্রী শাবানার পিতা-মোশারফ ও তার বাড়ির লোকজন  আমার ভাইয়ের বাড়িতে এসে ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে এবং খাটের তোশকের নীচে থাকা ৬০ হাজার টাকা জোর পূর্বক নিয়ে যায় ।
 শাবানা যখন গলায় ফাঁস নেই সেই সময় বাড়িতে কেউ ছিল না। তিনি আরো বলেন, সাবানার বাবা মোশারফ বাদী হয়ে কুমারখালী থানার একটি মিথ্যা মামলা করেন। যাহার মামলা নং - ৩০, তারিখ- ২৬/০৭/২০২১ ইং। আমার ভাই মোফাজ্জেল এর বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করবার জন্য সাংবাদিকদের মাধ্যমে জোর দাবি করেন।
মৃত শাবানার বাবা মোশারফের অভিযোগ, সাবানার  শ্বশুর বাড়ির লোকজন শাবানাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে।
এই বিষয়ে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, এই ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Post a Comment

0 Comments