আজ কুষ্টিয়ায় করোনায় ১ দিনে ২১ জনের মৃত্যু

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়া করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৮ জন এবং উপসর্গ নিয়ে আরো তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে মেডিক্যাল কলেজ পিসিআর ল্যাবে ৭৩৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৭৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার প্রায় ৩০ শতাংশ। শনিবার (১০ জুলাই) বেলা ১২টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবদুল মোমেন।
মৃতদের মধ্যে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১৮ জন, কুমারখালীতে এক, মিরপুরে এক এবং খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন একজন।
হাসপাতালের চিত্র তুলে ধরে তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবদুল মোমেন বলেন, আমাদের সক্ষমতা ২৫০ বেডের হলেও এ মুহূর্তে ২৯২ করোনা রোগী  চিকিৎসাধীন। এদের মধ্যে ৪০ শতাংশ রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। নানা প্রতিকূলতার মধ্যেও করোনা রোগীদের সর্বোচ্চ সেবা দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। তবে এসময়ে গ্রামাঞ্চলে সংক্রমিত রোগীদের অসচেতনতাকে অধিক মৃত্যুহারের জন্য দায়ী করছেন এই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা।
তিনি বলেন, তারা আক্রান্ত হলেও সময় মতো নমুনা পরীক্ষা না করা এবং অক্সিজেন লেভেল একেবারে কম পর্যায়ে এসে ঠেকে যাচ্ছে তখনই আসছেন হাসপাতালে। হাসপাতালে আসার পর এসব রোগীদের সব রকম চিকিৎসা দিয়েও রক্ষা করা যাচ্ছে না।
কুষ্টিয়া সিভিল সার্জন ডা. এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৭৩৪টি নমুনা পরীক্ষায় ১৭৬ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার প্রায় ৩০ শতাংশ। এসময়ের মধ্যে চিকিৎসাধীন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে ১৮ জনের এবং উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে আরও ৩ জনের। এর মধ্য দিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ৩২৮ জনের।

Post a Comment

0 Comments