কথিত পীর শামীমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে স্মারকলিপি

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ অনুসারীদের নিয়ে ঢাক-ঢোল বাজিয়ে নেচে-গেয়ে কিশোরের লাশ দাফনসহ ইসলামবিরোধী অপকর্মে জড়িত থাকার অভিযোগে কথিত পীর আব্দুর রহমান শামীমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী। কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ফিলিপনগর ইউনিয়নের পশ্চিম-দক্ষিণ ফিলিপনগর গ্রামের বাসিন্দারা এই দাবিতে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে।
এলাকার সাতশত মানুষের গণস্বাক্ষর সম্বলিত স্মারকলিপি দেন তারা। এ সময় ফিলিপনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল হক কবিরাজ, দৌলতপুর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়াসিম কবিরাজ, পশ্চিম-দক্ষিণ ফিলিপনগর জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ ওমর ফারুক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
জেলা প্রশাসক মো. সাইদুল ইসলামের পক্ষে স্থানীয় সরকার শাখার উপ-পরিচালক মৃণাল কান্তি দে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন। পরে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার মো. খাইরুল আলম, দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তারের কাছে স্মারকলিপির অনুলিপি দেওয়া হয়।
স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, ফিলিপনগর ইউনিয়নের পশ্চিম-দক্ষিণ ফিলিপনগর গ্রামের মৃত জেছের মাস্টারের ছেলে আব্দুর রহমান শামীম এলাকার বেশকিছু সংখ্যক যুবক-যুবতীর সরলতার সুযোগ নিয়ে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে পবিত্র ইসলাম ধর্মের সঙ্গে সাংঘর্ষিক শিক্ষা-দীক্ষা দিয়ে আসছে। যার বহিঃপ্রকাশ গত ১৬ মে রাতে পশ্চিম-দক্ষিণ ফিলিপনগর গ্রামের মহাসিন আলীর কিশোর ছেলে আঁখির (১৭) লাশ শামীম ও তার অনুসারীরা ঢাক-ঢোল পিটিয়ে নেচে-গেয়ে দাফন করে।   

Post a Comment

0 Comments