গৃহবধুর লাশ উদ্ধার

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় শ্যামলী খাতুন (৩০) নামের এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বাড়ির পাশে ধানখেত থেকে শুক্রবার দৌলতপুর থানাপুলিশ তাঁর লাশ উদ্ধার করে। শ্যামলী খাতুন উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের ঘোড়ামারা গ্রামের তাজমেল হোসেনের মেয়ে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শ্যামলী খাতুনের একাধিক বিয়ে হয়েছিল। তবে সব কটির বিচ্ছেদ হয়েছে। ঘোড়ামারা গ্রামের বৃদ্ধ মা ও ১২ বছরের এক মেয়েকে নিয়ে বাস করতেন তিনি। বাড়ির পাশে ধানখেতের পাশে লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে তাঁর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।
পরিবারের বরাত দিয়ে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন বলেন, বৃহস্পতিবার রাত নয়টার দিকে ঘর থেকে বেরিয়ে বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে একজনের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। এরপর আর ঘরে আসেননি। এ রকমভাবে প্রায়ই তাঁকে বাড়ির সামনে কথা বলতে দেখা যেত। কী কারণে কে বা কারা শ্যামলীকে হত্যা করেছে, তা তদন্ত করতে পুলিশ কাজ করছে। এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলা নেওয়া হবে।

 

Post a Comment

0 Comments