চেয়ারম্যানের মাছ চুরির অভিযোগে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার খোকসায় চেয়ারম্যানের পুকুর থেকে মাছ চুরির অভিযোগে জসিম উদ্দিন (৩২) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের দাবি, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী ও তার দলের লোকজন জসিম উদ্দিনকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। তবে এ বিষয়ে চেয়ারম্যানের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। জসিম উদ্দিন একই গ্রামের রওশন আলীর ছেলে। মঙ্গলবার (১৫ জুন) খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুজমান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, এঘটনায় জড়িত সন্দেহে ইউপি চেয়ারম্যান আয়ুব আলীর স্ত্রী রোকেয়া খাতুন এবং ভাইয়ের ছেলে আলাউদ্দিন নামে দু’জনকে আটক করা হয়েছে। চেয়ারম্যান ও তার তিন ছেলে পলাতক রয়েছেন।
স্থানীয়রা জানান, রাতে চেয়ারম্যানের মালিকানাধীন পুকুরে মাছ ধরতে যান জসীম উদ্দীন। বিষয়টি জানতে পেরে চেয়ারম্যান ও দলের লোকজন ওই যুবককে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করেন। তাকে উদ্ধার করে  খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার সকাল ৬টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক কামরুজ্জামান সোহেল জানান, ওই যুবকের মাথায় মারাত্মক জখম থাকায় মারা গেছেন।
খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুজমান জানান, কী কারণে হত্যাকাণ্ড তা নিশ্চিত হতে পারিনি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

Post a Comment

0 Comments