সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবীতে কুমারখালীতে গণমাধ্যম কর্মীদের মানববন্ধন

মোশারফ হোসেন ॥ রোজিনা ইসলামকে হেনস্থাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের ও মুক্তির দাবি জানিয়েছেন কুমারখালী উপজেলার কর্মরত বিভিন্ন গণমাধ্যমের কর্মীরা। একই সাথে তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারসহ দ্রুত নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানানো হয়। বুধবার (১৯) মে কুমারখালী  বাসস্ট্যান্ডে    মানববন্ধনে এদাবি জানানো হয়। কুমারখালী সম্মিলিত সাংবাদিকদের ব্যানারে  সকাল ১১ টায়, মানববন্ধন শুরু হয়ে ঘন্টাব্যাপী চলে।
সাংবাদিকের এই কর্মসূচীতে বিভিন্ন পেশার মানুষ মানববন্ধনে অংশ নেন।
এসময় এশিয়ান টিভির কুমারখালী প্রতিনিধি কে এম আর শাহীন, মাইটিভির কুমারখালী প্রতিনিধি লিপু খন্দকার, এটিএন বাংলার স্টাফ রিপোর্টার খন্দকার তুহিন আহমেদ, বাংলা টিভির কুমারখালী - খোকসা প্রতিনিধি এম এ উল্লাস, চ্যানেল এস এর কুমারখালী - খোকসা প্রতিনিধি মনোয়ান হোসেন, বিজয় টিভির খোকসা প্রতিনিধি তানভীর লিটন, দৈনিক সংগ্রামের কুমারখালী প্রতিনিধিমাহমুদ শরীফ,   ব্যুরো চিফ দৈনিক গণ মুক্তি  জাকের আলী শুভ,  দৈনিক ভোরের ডাকের কুমারখালী প্রতিনিধি মোশারফ হোসেন, স্থানীয় দৈনিক আজকের পত্রিকার কুমারখালী প্রতিনিধি মিজানুর রহমান নয়ন, সাপ্তাহিক অপরাধ অনুসন্ধানের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি মাহমুদ হাসান, যায়যায় দিনের কুমারখালী প্রতিনিধি ফরহাদ হাসান টিপু,দৈনিক কুষ্টিয়া খবরের কুমারখালী প্রতিনিধি সাহাবুদ্দিন তৈয়ব উৎপল, দৈনিক স্বদেশ বিচিত্রা কুমারখালী প্রতিনিধি সবুজ হোসেন, দৈনিক বর্তমান দিন কুমারখালী প্রতিনিধি কাজু আহমেদ, দৈনিক প্রভাতী খবর পত্রিকার কুমারখালী প্রতিনিধি, মোঃ নয়ন, দেশ তথ্য পত্রিকার কুমারখালী প্রতিনিধি সাব্বির হোসেন সহ   উপজেলার সর্বস্তরের সাংবাদিকরা মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে যায় সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম। এসময় রোজিনা ইসলাম কে প্রায় ৬ ঘন্টা ধরে আটকে রেখে হেনন্তা করেছে। এসব দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের গ্রেপ্তার ও সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে। ঘটনার মূলহোতা অতিরিক্ত সচিবের কিভাবে বিপুল সম্পদের মালিক হয়েছেন তা খতিয়ে দেখারও দাবি জানান বক্তারা।

Post a Comment

0 Comments