আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৫

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার খোকসার একটি গ্রামে আধিপত্য বিস্তারে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলা ও বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বুধবার  রাতে উপজেলার কোমরভোগ গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে।
এ হামলায় শাহজাহান আলী (৪৫), আমিরুল ইসলাম (৪০), রাশিদুলসহ দু’পক্ষের অন্তত ১৫ নারী-পুরুষ-শিশু আহত হয়েছে। এর মধ্যে শাহজাহান আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে রয়েছেন।
জানা যায়, বুধবার রাতে কোমরভোগ গ্রামের স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা ও ইউপি সদস্য জাবেদ আলী ও নয়নের সহযোগীদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে একপক্ষ প্রতিপক্ষের লোকদের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এসময় ১৫ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে শাহজাহানের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্র্তি করা হয়েছে।
ওসমানপুর ইউপি মেম্বার জাবেদ আলী বলেন, দু’পক্ষের লোকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এসময় প্রতিপক্ষের নেতা লিটন মাস্টার হামলা চালানোর ঘোষণা দেন। প্রতিপক্ষের লোকজন জাবেদ আলীর বাড়িতে ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে। এরপর রাতে জাবেদ আলীর লোকজন পাল্টা প্রতিপক্ষের ওপর হামলা চালায়।
খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Post a Comment

0 Comments