Header Ads

কুষ্টিয়ায় ২৭ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ায় মালবাহী ট্রেনের লাইনচ্যুত পাঁচটি ওয়াগন ২৪ ঘন্টা পর উদ্ধার করা হয়েছে। এর ফলে ২৭ ঘণ্টার পর আজ সন্ধ্যা ৭ টারদিকে ট্রেন চলাচল শুরু হয়। রেলওয়ের কুষ্টিয়ার স্টেশন মাষ্টার মো. জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
আজ সন্ধ্যা সাড়ে ৭ দিকে রাজবাড়ি-রাজশাহী রুটের মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেন কুষ্টিয়া স্টেশন থেকে ছেড়ে য়ায়।
দুর্ঘটনার পর শুক্রবার বিকাল ৫ টারদিকে রিলিফ ট্রেন এসে উদ্ধার কাজ শুরু করে। উদ্ধার শুরুর প্রায় ২৪ ঘন্টা পর দুর্ঘটনা ওয়াগনগুলো টেনে তুলে সরিয়ে নেয়া হয়। লিরিফি ট্রেনের ড্রাইভার আফতাব হোসেন জানান, রেলওয়ের ট্রান্সপোর্ট বিভাগের কর্মী, শ্রমিকসহ বিভিন্ন ক্যাটগরির শতাধিক লোকবল উদ্ধার কাজে অংশ গ্রহন করেন। এর আগে দুমড়ে-মুচড়ে ক্ষতিগ্রস্থ রেল লাইন সরিয়ে ১০ থেকে ৩০ ফুট লম্বা সাইজের ৮/১০ টি নতুন রেল লাইন ও ২৫/৩০টি স্লিপারসহ, পিন, ফিসপ্লেট প্রতিস্থাপন করে লাইন সচল করা হয়।
শুক্রবার (৫ মার্চ) দুপুর আড়াইটায় কুষ্টিয়া শহরের মিলপাড়া এলাকার বড় স্টেশনের অদূরে লাইনের ওপর আগে দাঁড়িয়ে থাকা একটি রেল ট্রলির সঙ্গে মালবাহী ট্রেনের সংঘর্ষ হয়। এতে পাঁচটি বগি লাইনচ্যুত হয়। এ ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও ট্রেন লাইন দুমড়ে মুচড়ে যায়। এতে কুষ্টিয়ার সঙ্গে খুলনা, রাজশাহী, গোয়ালন্দ ও ফরিদপুরের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।
দুর্ঘটনায় ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে স্বীকার করা হলেও টাকার অংকে কি পরিমান তা নিরুপন সম্ভব হয়নি বলে তদন্ত কমিটির সদস্যরা জানান। দুর্ঘটনায় কর্তব্যে অবহেলা ও গাফিলতির দায়ে রেলওয়ের উপ-বিভাগীয় প্রশৌশলী সাইফুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া তদন্তে অন্য যারা অভিযুক্ত হবেন তাদের বিরুদ্ধেও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে তদন্ত কমিটির প্রধান নাসির উদ্দিন জানান।

No comments

Powered by Blogger.