ভেড়ামারা জগৎ জননী মাতৃমন্দিরের দুর্নীতিবাজ সভাপতি অসিমসহ কমিটি’র বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা প্রেসক্লাব'র হলরুমে শনিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে ভেড়ামারা শ্রী শ্রী জগৎ জননী মাতৃমন্দিরের প্রশ্নবিদ্ধ কমিটি বিলুপ্তিসহ দুর্নীতিবাজ সভাপতি অসিমের বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন। করে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছে। এসময় সঞ্জয় কুমার বিশ্বাস সাংবাদিক সম্মেলন লিখিত বক্তব্য পেশ করেন।
লিখিত বক্তব্য বলেন, ভেড়ামারা উপজেলার হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্ম সংক্রান্তের সমস্ত কার্যাবলী সুষ্ঠ ভাবে পরিচালনার জন্য শ্রী শ্রী জগৎ জননী মাতৃমন্দিরের একটি স্বচ্ছ কমিটি দ্বারা পরিচালিত হওয়ার বিধান রয়েছে। কিন্তু পরিতাপের বিষয় বর্তমান কমিটি অস্বচ্ছভাবে অগঠনতান্ত্রিক নিয়মে কমিটির মধ্যে থাকা কয়েকজন সুবিধাবাদী ব্যক্তিদের দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে। বর্তমান কমিটি ২০১৬সালে অক্টোবর মাসে সর্ব সম্মতিক্রমে গঠন করা হয়। এর কিছু দিন পরেই কমিটি নিয়মের বাইরে গিয়ে তারা অগঠনতান্ত্রিক নিয়মে কার্যক্রম শুরু করে। এই ঘটনায় অনেকেই প্রতিবাদ করতে তাদের প্রতিহিংসার স্বীকার হয়। এভাবেই চলে আসছে এযাবৎ। বর্তমানে কমিটিতে দূর্নীতি,স্বজনপ্রীতি ও স্বেচ্ছারিতা দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে। এর থেকে প্রতিকার পেতেই সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপের একান্ত প্রয়োজন। বর্তমান কমিটি যে ধরনের দূর্নীতি, স্বজনপ্রীতি ও স্বেচ্ছারিতা করেছে তার কিছু তথ্য আপনাদের সামনে তুলে ধরা হলোঃ ০১) বর্তমান কমিটির শুরু হয় ২০১৬সালে এবং মেয়াদকাল ০৩(তিন) বৎসর থাকলেও তা প্রায় পাঁচ বৎসর হতে চলেছে। নতুন কমিটি না করেই পুরাতন কমিটি দিয়ে মন্দিরের কার্যক্রম পরিচালনা করছে। যাহা সম্পূর্ণ অগঠনতান্ত্রিক। এর ফলে মন্দিরের হিসাব-নিকাশ হিন্দু সম্প্রদায়ের সকলের কাছে এখন পর্যন্ত অজানায় রয়ে গেছে। ০২) পাঁচ বৎসরে একটিও জেনারেল মিটিং সম্পন্ন করতে পারেনি বর্তমান কমিটি। ০৩) কমিটির অন্যান্য সদস্যদের বাইরে রেখে দখলকৃত দূর্নীতিবাজ সভাপতি অসিম কুমার রায় ও
সাধারন সম্পাদক কার্ত্তিক চন্দ্র কুন্ডুসহ ৪-৫জন ব্যক্তি প্রভাব খাটিয়ে নিজেরাই ঘরে বসে সকল সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে। ০৪) অগঠনতান্ত্রিক ভাবে বর্তমান কমিটি থেকে সহ-সভাপতি, সাংগঠনিক, সহ-ক্যাশিয়ার ও প্রচার সম্পাদক পদের ব্যক্তিদের আলোচনা ছাড়াই বের করে দিয়েছে এবং সেখানে তাদের পছন্দমত অযোগ্য নতুন ব্যক্তিদের অর্ন্তভুক্ত করেছে। যাহা জেনারেল মিটিং এ অনুমোদন ছাড়া সম্পূর্ণই বেআইনী, কারও ব্যক্তি আক্রোশ বা প্রভাব খাটিয়ে করার কোন এখতিয়ার নাই। ০৫) বর্তমান সভাপতি শ্রী বলরাম বিশ্বাস’র অসুস্থ্য থাকার সুযোগ নিয়ে সেই পদে জোর পূর্বক সহ-সভাপতির পদে দায়িত্বে থাকা অসিম কুমার রায়, সভাপতির পদ জোর পূর্বক দখল করে আছেন। এ থেকে পরিত্রান পেতে ভেড়ামারার হিন্দু সম্প্রদায় অনুমান ২০২০সালের আগষ্ট মাসে গণস্বাক্ষরিত একটি অভিযোগপত্র, ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার, ভেড়ামারা পৌরসভার মেয়র এবং ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবর জমা দেওয়া হয়। কিন্তু এ থেকে কোন সুরাহা না হওয়ায় বিষয়টি দিনকে দিন আরও জটিল হয়ে উঠছে। সাংবাদিকদের মাধ্যমে এ বিষয়ে প্রশাসনের আবারও সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, বিষয়টি স্থায়ী ভাবে সুরাহা প্রদান করার জন্য। বিশেষ ভাবে জানাতে বাধ্য হচ্ছি, অতীতে আমাদের হিন্দু সম্প্রদায়ের জেলা কমিটি এ বিষয়ে এ্যাডভোকেট শংকর মুজমদারকে আহবায়ক করে ৫সদস্য বিশিষ্ট্য তদন্ত কমিটি সমাধান দিতে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে। তাদের কাছে আবারও ভেড়ামারা শ্রী শ্রী জগৎ জননী মাতৃমন্দিরের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে তাদের কার্যকরী ভূমিকা রাখার বিশেষ ভাবে দাবী জানাচ্ছি। ভেড়ামারা শ্রী শ্রী জগৎ জননী মাতৃমন্দিরের প্রশ্নবিদ্ধ কমিটি বিলুপ্তি ও শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানাচ্ছি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, ভেড়ামারা হিন্দু সম্প্রদায়ের পক্ষে ১) সঞ্জয় কুমার বিশ্বাস, ২) বিপুল কুমার দেবনাথ ৩) বাবু ঠাকুর, ৪) উত্তম দেবনাথ, ৫) বাবু ঠাকুর

Post a Comment

0 Comments