মিস কলের সুবাদে অটো চোর ধরলো কুমারখালী থানা পুলিশ

মোশারফ হোসেন কুমারখালী \ আপন দুই ভাই যখন আন্তঃজেলা অটোরিকশা চোর চক্রের সদস্য। অটো ভাড়া নিয়ে চুরি করাই যাদের পেশা।
একটি মোবাইল ফোনে মিস কলের সূত্র ধরে চোর চক্রের সন্ধান পায় পুলিশ। গত বুধবার পাবনা আটঘরিয়া থেকে অটোরিকশা ভাড়া করে ঈশ্বরদীর উদ্দেশ যাওয়ার কথা বলে পথের মধ্যে অটোরিকশা চুরি হয়।  তারিপরিপ্রেক্ষিতে আটঘরিয়া থানায় একটি মামলা করে ভুক্তভোগী অটোর মালিক সানজাহান আলী।
অটোরিকশাটি চুরি করে, কুমারখালী দয়রামপুর কারিগর পাড়া মৃত আবুবক্কর দুই পুত্র আমিরুল ও জাহিদুল।
(৪) ফেব্রুয়ারি কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী তে অভিযান চালিয়ে আন্তঃজেলা অটো চোর চক্রের ২ সদস্যকে আটক করেছে কুমারখালী  থানা পুলিশ। আটক চোর চক্রের সদস্যদের কাছ থেকে ১ টি চোরাই ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সা উদ্ধার করা হয়েছে। পাবনা আটঘরিয়া থানার এস,আই নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে কনস্টেবল শাহিন ও চৌকিদার নিমাই এই আন্তঃজেলা চোর চক্রকে ধরতে সক্ষম হয়।
 এস, আই নাসির উদ্দিন আরো জানান, অটো চালক কে একটি মিস কল দেয় আমিরুল, তারি সূত্র ধরে মোবাইল ট্র্যাক  করে জানাযায় চোর চক্রের সদস্য আপন দুই ভাই তাদের ঠিকানা কুমারখালী। আমি ও আমার  টিম কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মজিবুর রহমানের সাহায্যো নিয়ে এই চোর চক্র কে আটক করি।
 কুমারখালী থানার ওসি মজিবুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে দয়রামপুর কারিগর পাড়া   থেকে  মৃত আবুবক্কর ব্যাপারি  ছেলে আমিরুল ইসলাম (৩০) জাহিদুল ইসলাম (২৮) সম্পর্কে তারা আপন দুই ভাই, কে আটক করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তির সূত্র ধরে  রাজবাড়ী শহরে অভিযান চালিয়ে চুরি যাওয়া অটোরিকশা উদ্ধার করা হয়।
 অটোরিকশার মালিক পাবনা আটঘরিয়া আবুল খালেকের পুত্র   সানজাহান আলী  আটঘরিয়া থানায়  বাদী হয়ে বুধবার একটি মামলা করেন, মামলা নং (৪)।  গত ৩ ফেব্রুয়ারি দুপুরে দিকে   অটোরিক্সাটি আমিরুল ও জাহিদুল  ভাড়া নেয় । তারা এক জন অটোরিকশা চালকের সাথে নিয়ে দড়ি কেনার জন্য যায়, আর এক ভাই অটো নিয়ে চলে যায়।  অটোরিক্সাটি চুরি করে কুষ্টিয়া চলে আসে, চোর চক্রটি বিভিন্ন যায়গা থেকে অটো চুরি সহ বিভিন্ন অপরাধ মূলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত ।
এই ঘটনায় পুলিশের ভূয়সি  প্রশংসা করেছেন ভূক্তভূগীর পরিবার।

Post a Comment

0 Comments