কুষ্টিয়ায় কলেজ শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক \ কুষ্টিয়া পৌরসভার এক নম্বর ওয়ার্ডের কমলাপুর এলাকা থেকে গোলাম মোস্তফা (৪৮) নামে এক কলেজশিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) রাতে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।
নিহত গোলাম মোস্তফার বাড়ি মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার জোড়পুকুরিয়ার ভোমর গাঁ এলাকায়। তেরাইল জোড়পুকুরিয়া ডিগ্রি কলেজের সাহিত্যের শিক্ষক গোলাম মোস্তফা কমলাপুর এলাকায় ভাড়া থাকতেন।
পুলিশ জানায়, কমলাপুরের আফজাল হোসেনের বাড়ির তৃতীয় তলার একটি ফ্ল্যাটে বিগত চার-পাঁচ মাস ধরে ভাড়া থাকতেন। শুক্রবার ওই ফ্ল্যাট থেকে দুর্গন্ধ বের হলে বাড়ির মালিক আফজাল হোসেন ৯৯৯ এ ফোন দেন। পরে পুলিশ গিয়ে ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে ভেতরে ওই শিক্ষকের মরদেহ দেখতে পায়।  
কুষ্টিয়া সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহা. আব্দুল কুদ্দুস জানান, ওই শিক্ষকের ঘরে ঢুকে বাথরুমের সামনে তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। টয়লেটের পানির কল ছাড়া ছিল। নিহতের দু’টি মোবাইল ফোন বন্ধ অবস্থায় খাবার টেবিলের ওপর ছিল। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।
কুষ্টিয়া পৌরসভার এক নম্বর ওয়ার্ড কমিশনার নাইমুল ইসলাম বলেন, পরে মোস্তফার বন্ধ মোবাইল ফোনে চার্জ দিয়ে চালু করা হয়। পরে নিহতের বোনের মেয়ে ওই ফোনে কল করে জানান, ফোন বন্ধ থাকার কারণে গত রোববার (২৪ জানুয়ারি) থেকে পরিবারের কেউ তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি।

Post a Comment

0 Comments