শ্বশুরবাড়ি থেকে মৃতদেহ উদ্ধার

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ খাগড়াছড়ির মানিকছড়িতে জেসমিন আক্তার ওরফে রিমি নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার মাস্টারপাড়া এলাকার বাসা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। জেসমিন আক্তার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার শিলছড়ি গ্রামের আলমগীর হোসেনের মেয়ে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার (১৮ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে জেসমিনের কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে প্রতিবেশীরা ডাকাডাকির একপর্যায়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে ঘরের দরজা ভেঙে জেসমিনকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান চিকিৎসক মহিউদ্দীন।
মানিকছড়ি থানার ওসি আমির হোসেন জানান, পারিপার্শ্বিক সব ঘটনা বিবেচনা করে ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে। জেসমিনের ছোট ভাই বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
জেসমিনের পরিবারের সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি উপজেলার তিনটহরী এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে জোনায়েদের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন জেসমিন। ৩-৪ মাস আগে পালিয়ে বিয়ে করে ভাড়া বাসায় সংসার শুরু করেন তারা। বিষয়টি জানাজানি হলে ছেলের পরিবার তাদের সম্পর্ক মেনে না নিয়ে জেসমিনকে তালাক দিতে নানাভাবে চাপ দিতে থাকে। একপর্যায়ে ছেলেকে নিয়ে আত্মগোপন করে পরিবার। এ নিয়ে সালিশেও কোনো সুরাহা হয়নি। শ্বশুরবাড়ির পক্ষের অমানবিক আচরণের কারণে জেসমিন আত্মহত্যা করেছে বলে দাবি করছে তার পরিবার।

Post a Comment

0 Comments