৭ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে টিকাদান

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক \ আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে একযোগে টিকাদান হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। মঙ্গলবার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভ্যাকসিন প্রদান কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী একথা জানান।
এদিকে ২৭ ও ২৮ জানুয়ারি ঢাকায় ৪০০ থেকে ৫০০ জনের মধ্যে পরীক্ষামূলক টিকা প্রয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এদিন কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে একজন নার্সকে ভ্যাকসিন দেয়ার মধ্যদিয়ে এ কার্যক্রম শুরু হবে। ইতোমধ্যে কুর্মিটোলা হাসপাতালের শীর্ষ কর্মকর্তারা ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য তিনজন নার্সের নাম চূড়ান্ত করেন। তাদের মধ্যে শারীরিকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ যিনি থাকবেন তাকেই প্রথম ভ্যাকসিন দেয়া হবে।
তালিকাভুক্ত তিনজন নার্স কারা সে সম্পর্কে কঠোর গোপনীয়তা রক্ষা করা হচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল (বুধবার) ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে করোনা ভ্যাকসিন প্রদান কর্মসূচি উদ্বোধন করবেন বলেও জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।
অন্যদিকে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে সরকারিভাবে কেনা অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ৫০ লাখ ডোজ টিকার মানবদেহে প্রয়োগের অনুমতি দিয়েছে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।
মঙ্গলবার অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেলে মাহবুবুর রহমান সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
রাজধানীর মহাখালীতে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত ওই সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, টিকার প্রতিটি লটের নমুনা পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরীক্ষা করা হয়েছে। আগামীকাল এই টিকা দিয়েই শুরু হবে করোনাভাইরাসের টিকাদান।

Post a Comment

0 Comments