নতুন বছরে কুমারখালী উপজেলার শিক্ষার্থীরা পেল নতুন বই

মোশারফ হোসেন ॥ 'স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলি, নিরাপদে বই গ্রহণ করি' এই প্রতিপাদ্য কে সামনে রেখে।
কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলা  ১৪৭ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সারা দেশের ন্যায় নতুন বছরের শুরুতে বই পেল ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা। নতুন বই পেয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের মাঝে আনন্দের বন্যা"।বই হাতে পেয়ে বার- বার বই দেখা আর মুখে হাসি। কুমারখালী উপজেলা চড়াইকোল প্রাথমিক বিদ্যালয় ২য় শ্রেণী তানজিলা নতুন বই হাতে পেয়ে বই বুকে জড়িয়ে ধরে দাঁড়িয়ে আছে।  নতুন বই পেয়ে কেমন লাগছে জানতে চাইলে , ‘খুব ভালো লাগছে। খুব আনন্দ লাগছে।’ বেলঘড়িয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়  চতুর্থ শ্রেণীর আশাদুর বাবা দরজির কাজ করেন। আর মা গৃহিণী  বিনা মূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ উৎসবে আশাদুর মতো সব শিশুই নতুন বই হাতে পেয়ে আনন্দে মেতে ওঠে।
তেবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমজাদ হোসেন বেলাল বলেন, ‘আমরা সকাল নয়টা থেকে দুই ধাপে বেলা দুইটা পর্যন্ত প্রায় শতভাগ শিক্ষার্থীর হাতে বই তুলে দিয়েছি।’ যারা কোনো কারণে বিদ্যালয়ে আসতে পারেনি, তারা পরে এলেও বই পাবে।
করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও যথাসময়ে প্রায় সাড়ে চার কোটি শিক্ষার্থীর হাতে বিনামূল্যে নতুন বই তুলে দিচ্ছে সরকার। তবে এবার সম্পূর্ণ ভিন্ন এক পরিস্থিতিতে নতুন পাঠ্যবই হাতে পেতে শুরু করেছে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। নেই কোন শোরগোল; নেই উৎসবের আমেজ। ১ জানুয়ারি ২০২১ চকরঘুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের হাতে নতুন বই তুলে দেন কুষ্টিয়া জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার তবিবুর রহমান, সহকারী জেলা শিক্ষা অফিসার আব্দুল হান্নান, এই সময় উপস্থিত ছিলেন জালাল উদ্দীন উপজেলা শিক্ষা অফিসার কুমারখালী।
করোনার সংক্রমণের কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে বন্ধ থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর ছুটি ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত বাড়ানো হলেও বই সংগ্রহের জন্য ফের শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখর হয়েছে স্কুলগুলো।
সরকারের পূর্ব ঘোষিত সিদ্ধান্ত মেনে ১ জানুয়ারি শুক্রবার সকাল থেকে কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলোতে বিনামূল্যে বই বিতরণ শুরু হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে নতুন বই নিতে নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গেছেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা। সকাল থেকেই প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পক্ষে অভিভাবকেরা এবং মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নিজে গিয়ে বই বিতরণের কর্মসূচিতে অংশ নেয়।

Post a Comment

0 Comments