পরিবর্তনের জোয়ারে ভাসছে পৌরসভার ভোটাররা : ভেড়ামারা পৌর মেয়র প্রার্থী আনোয়ারুল কবির টুটুল


চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা পৌরসভা নির্বাচনে প্রথম বার মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বি, ভেড়ামারা উপজেলা যুবজোটের সভাপতি, বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী ও সমাজ সেবক আনোয়ারুল কবীর টুটুল মশাল প্রর্তীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।  তিনি প্রথম নির্বাচনে বিপুল ভোটে মেয়র পদে নির্বাচিত হবেন বলে আশা করেন। এলাকার সামগ্রিক উন্নয়ন আর গণমানুষের সাথে সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রেখে আগামী ১৬ই জানুয়ারি’২১ শনিবার অনুষ্ঠিতব্য পৌর নির্বাচন সকলের নিকট দোয়া ও সমর্থন চেয়েছেন। এবারো তিনি প্রথম বারের মত মেয়র নির্বাচিত হবেন আশাবাদ। 
পৌরবাসীর প্রতি মেয়র প্রার্থী টুটুল'র আহবান। সুশাসন, ন্যায়বিচারের অভাবে অনেকের চাপা কান্নার আওয়াজ বাতাসে ছড়িয়ে রয়েছে। নিম্ন মানের রাস্তা নির্মাণ করার ফলে বার বার সংস্কার করতে গিয়ে সরকারি টাকা অপচয়। জলাবদ্ধতার ভোগান্তিতে দিশেহারা অবস্থায় পৌরবাসী। ডাষ্টবিন না থাকায় গোটা  পৌরসভা যেন আবর্জনার ভাগারে পরিনত হয়েছে। দুর্গন্ধ, অসাস্থ্যকর পরিবেশে পৌরবাসীর বসবাস। এগুলোর জন্য পৌর কতৃপক্ষের অদক্ষতা অবহেলা অনিয়ম ও অপরিপক্ক সিদ্ধান্তই দায়ী। পৌরবাসীর প্রতি আমার আহবান, অনুরোধ- ভোটের মাধ্যমে  রুখে দিন অন্যায় অবিচারকারীর। আসুন আমরা সবাই মিলে আমাদের পৌরসভাকে মানবতার ও বসবাসযোগ্য আধুনিক পৌরসভায় রূপ দিই।

আসন্ন ভেড়ামারা পৌরসভা নির্বাচনে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল থেকে মনোনয়ন নিয়ে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য ইতি মধ্যে মনোনয়ন ফর্ম জমা দিয়েছি ইনশাআল্লাহ। আপনারা আমাকে অনেকেই চেনেন, জানেন আমি মোঃ আনোয়ারুল কবির টুটুল, পিতা আলহাজ¦ আবুল কালাম একজন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, মাতা আলহাজ¦ আনজেরা বেগম। আমার জন্ম ১৯৭৯ সাল সাং-রথপাড়া, ভেড়ামারা পৌরসভা। আমার শৈশব কৈশোর কাল কেটেছে সুন্দর ছায়াঘেরা এই পৌরসভাতেই। অতঃপর আমি স্নাতক ডিগ্রী বিবিএ এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রী এমবিএ ২০০২ সালে দি পিপলস ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ থেকে সম্পন্ন করি। শিক্ষা কাল শেষে আমি চাকুরিতে নিয়োজিত ছিলাম, পরবর্তীতে এখন আমি ব্যবসার সাথে সম্পৃক্ত আছি। আমার প্রতিষ্ঠিত এ.কে কন্সট্রাকশন একটি স্বনামধন্য প্রথম শ্রেণীর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় ভেড়ামারা পৌরসভায় আমি খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ও সকল ধর্মের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সামাজিক কর্মকান্ডে সহযোগীতা করে আসছি।

ছাত্র জীবন থেকেই নিজের কর্ম জীবনের সাথে সাথে রাষ্ট্র, মানুষ, সমাজ, জাতির জন্য ভালো কিছু ভূমিকা রাখার জন্য আমার মনের মধ্যে আমি একটি স্বপ্ন দেখি। আমার দীর্ঘ দিনের লালিত স্বপ্ন ভেড়ামারা পৌরসভাকে একটি সুন্দর ও আধুনিক পৌরসভা হিসাবে গড়ে তোলার। গত ২বার সরকার দলীয় প্রার্থী মেয়র হয়েছে, আশা ছিল এ দীর্ঘ সময়ে   ভেড়ামারা পৌরসভার মানুষের জীবন যাত্রায় মান বাড়াবে, ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হবে এবং সবার স্বপ্নের ভেড়ামারায় পরিণত করবে। কিন্তু গভীর দুঃখের সাথে বলতে হয় বর্তমান মেয়র পৌরসভা বাসীর সেই প্রত্যাশা পূরণে সম্পূর্ন ব্যর্থ হয়েছে এবং দৃশ্যমান কোন উন্নয়ন করেনি।

তাই আমার শুভাকাঙ্খী যারা জানতো পৌরসভা নিয়ে আমার ভাবনার কথা তারা আমাকে উৎসাহিত করেছে আধুনিক পৌরসভা গড়ার জন্য তাদের পরামর্শে বিগত কয়েক মাসে ভেড়ামারা পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে, প্রতিটি বাড়ীতে, বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে মত বিনিময় করেছি তারা আমাকে আসন্ন  ভেড়ামার  পৌরসভা  ২০২১ নির্বাচনে মেয়র পদে নির্বাচন করার জন্য উৎসাহিত করেছে ও মতামত দিয়েছেন। সেই মোতাবেক আমি মেয়র প্রার্থী হয়েছি। মহান আল্লাহতালা যদি সহায় হন এবং  আপনারা আপনাদের মূল্যবান ভোট সিল দিয়ে আমাকে ভেড়ামারা পৌরসভার  মেয়র নির্বাচিত করেন তাহলে আমি আপনাদের কথা দিচ্ছি নিম্নে বর্ণিত কর্মসূচী সমূহ আল−াহর রহমতে বাস্তবায়ন করার জন্য জীবন পণ চেষ্টা করব।

আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে আপনাদের মূল্যবান ভোট সীলের মাধ্যমে আমি নির্বাচিত মেয়র হলে প্রথমে ভেড়ামারা পৌরসভা থেকে যত রকমের অনিয়ম দূর্নীতি আছে আমি দৃঢ় ভাবে অঙ্গীকার করছি সেটা মুক্ত করে পৌরসভাকে একটি সেবালয়ে পরিণত করব।  

ভেড়ামারা পৌরসভার জলাবদ্ধতা একটি প্রকট সমস্যা এই সমস্যা দূরীকরণের জন্য আমি মাষ্টারপ্লান অনুযায়ী প্রত্যেক ওয়ার্ডে জলাবদ্ধতা দূর করার জন্য ড্রেন নির্মাণ অথাৎ ড্রেন নির্মাণ করে পানি বাহির করার জন্য আউট লাইনের ব্যবস্থা করব। ভেড়ামারা দক্ষিণ রেল গেট থেকে হিসনা নদী ও দক্ষিণ রেল গেট থেকে উত্তর রেল গেট পর্যন্ত ফুটপাত ড্রেন নির্মাণ করে পৌরসভার পূর্ব পাশ ও পশ্চিম পাশের জলাবদ্ধতা দূর করব যাতে মানুষ ফুটপাত দিয়ে সাচ্ছন্দে নিরাপদে চলাচল করতে পারে।

আমি নির্বাচিত হলে প্রতি বছর অস্বচ্ছল, মেধাবী, প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের পড়া লেখার জন্য বৃত্তি প্রদানের ব্যবস্থা করব এবং আমার সন্মানী ভাতা থেকে অসহায় দরিদ্র পরিবারের মেয়েদের বিয়ের জন্য এই অর্থ সহযোগিতা করবো।

ভেড়ামারা পৌরসভায় যারা মাদকাসক্ত হয়ে নিজে এবং পরিবারকে নিঃস্ব করছে, আমি জয়ী হলে পৌর উদ্যোগে মাদক নিরাময় কেন্দ্র স্থাপন করবো এবং ভেড়ামারা পৌরসভাকে মাদকমুক্ত পৌরসভা গড়ব। আকাশ সংস্কৃতির কারণে সারাদেশে অপঃসংস্কৃতির জন্য ছোট ছোট ছেলে মেয়েরা আসক্ত হয়ে পড়েছে। আমি নির্বাচিত হলে সব ধরনের খেলাধুলার ব্যবস্থা পৌর উদ্যোগে করবো যাতে তারা শারীরিক ও মানসিক ভাবে সুস্থ থাকে।

ভেড়ামারা ছোট শহর কিন্তু মানুষের বিনোদনের কোন ব্যবস্থা নেই। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে বিনোদনের জন্য জমি অধিগ্রহন করে হলেও মিনি পার্ক নির্মাণ করবো।

যেহেতু পৌর মাস্টারপ্লান অনেক পূর্ব থেকেই আছে আমি ভেড়ামারা পৌরসভা দৃশ্যমান উন্নয়ন করার জন্য স্থানীয় সরকার, বিশ^ ব্যাংক ও এডিবির বিভিন্ন প্রকল্পের আওতা ভুক্তকরে পৌরসভার দৃশ্যমান উন্নয়ন করব।

আপনারা পৌরসভা মেয়র নির্বাচনে যদি ভোট দিয়ে আমাকে জয়যুক্ত করেন, তাহলে পৌরসভার প্রতি বাড়ীর জন্য ভ্রাম্যমান বজ্র অপসারণ ব্যবস্থা ও পরিবেশ বান্ধব ডাস্টবিন নির্মাণ করে ময়লা আবর্জনা থেকে জৈব্য সার সম্পদ রুপান্তরিত করে পৌরসভার আয় বৃদ্ধি করব।

পৌরসভার প্রতিটি অঞ্চলে বৈদ্যুতিক বাতির সুব্যবস্থা করে অন্ধকার পৌরসভাকে আলোকিত করব।
আপনারা আমাকে নির্বাচিত করলে আমি প্রতি ৩ (তিন) মাস পর পর প্রত্যেক ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে বিভিন্ন শ্রেণীর পেশার মানুষের সাথে মত বিনিময় করে সেই এলাকায় সমস্যা চিহ্নিত করে সমস্যা সমাধান করব।

ভেড়ামারা পৌর সাধারণ নাগরিক সমস্যা সমাধানের জন্য বাড়ীতে বসেই যাতে তাদের সেবা পান সেই লক্ষ্যে ডিজিটাল অনলাইন সেবা চালু করব।

সকল ধর্মের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে আমার সহযোগিতা থাকবে এবং সাহিত্য প্রেমী যারা আছেন তাদের জন্য পৌরসভাতে একটি লাইব্রেরী নির্মাণের ইচ্ছা আছে।

আমি মেয়র নির্বাচিত হলে দুস্থ, অসহায় ও অসচ্ছল মানুষের জন্য সরকারী অনুদান যেমন ভিজিএফ, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, হরিজন সম্প্রদায়ের জন্য ভাতার যথাযথ উপযুক্ত সমতার ভিত্তিতে ব্যক্তিদের মধ্যে বিতরণ করব।

ভেড়ামারা পৌরসভার যানজট নিরসনের জন্য বাস টার্মিনাল, অটো, সিএনজি ও রিক্সা ষ্ট্যান্ড নির্মান করব। সেই সাথে অবৈধ্য সকল ধরণের চাঁদাবাজী থেকে পৌরসভাকে মুক্ত করব ইনশাআল্লাহ।আপনারা আমাকে মেয়র হিসাবে নির্বাচিত করলে স্বাস্থ্য সম্মত মাংস ক্রয়ের জন্য কশাই খানা নির্মান করব ও পৌর মার্কেটে মহিলাদের জন্য আলাদা সৌচাগার নির্মাণ করব।

আমি যদি আপনাদের ভোটে মেয়র হিসাবে নির্বাচিত হই তাহলে দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পৌরসভার মাধ্যমে প্রতি বছর সংবর্ধনা প্রদান করব এবং তাদের বাড়ির পানির বিল মওকুফ করব।

আমি নির্বাচিত হলে পৌর কর, বাড়ীর প্লান, জমি জরিপ ও সামাজিক বিচার আচার ন্যায় সঙ্গত ভাবে সমতার ভিত্তিতে দল মত নির্বশেষে বৈষম্যহীন ভাবে  আমার দায়িত্ব পালন করব।

২০০৬  সালে ভেড়ামারা পৌরসভা তৃতীয় শ্রেণী থেকে দ্বিতীয় শ্রেণীতে উন্নীত হয় আমি নির্বাচিত হলে ভেড়ামারা পৌরসভার নতুনমাষ্টারপ্লান বাস্তবায়ন করে সম্ভাবনাময় এই পৌরসভার আবাসিক কর বৃদ্ধি না করে ব্যাপক রাজস্ব আয়ের নতুন নতুন উৎস তৈরী করে পৌরসভার নিজস্ব আয় বৃদ্ধি করে ২য় শ্রেণীর পৌরসভা থেকে প্রথম শ্রেণীতে উন্নিত করার চেষ্টা করব।

উল্লিখিত কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে হলে প্রাতিষ্ঠানিক প্রতিষ্ঠা দরকার বা নির্বাচিত প্রতিনিধি হওয়া দরকার। ইতিপূর্বে আমি কখনো নির্বাচিত প্রতিনিধি হওয়ার সুযোগ পাই নাই। তাই আপনাদের কাছে আকুল আবেদন আল্লাহরস্থে আমাকে একটি বারের জন্য মেয়র  নির্বাচিত করে উল্লিখিত কর্মসূচি বাস্তবায়নের মাধ্যমে ভেড়ামারা পৌরসভার দৃশ্যমান উন্নয়ন ও সন্মানীত পৌর নাগরিকদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন ও পৌরসভাকে শতভাগ সেবা মূলক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করে পৌরবাসীর সেবা করব। আমি ও আমার শ্রদ্ধেয় বাবা দুজনই ব্যবসায়িক ভাবে সু-প্রতিষ্ঠিত সুতরাং আপনাদেরকে আল্লাহর রহমতে কথা দিতে পারি পৌরসভায় দুর্নীতির মাধ্যমে কোন অবৈধ্য অর্থ আমি স্পর্শ করব না। সুতরাং আপনাদের কাছে আমার অনুরোধ আমাকে একটি বারের জন্য মেয়র নির্বাচিত করে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দিন। আমি যদি উল্লিখিত কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে না পারি বা আপনাদের দেওয়া কথা না রাখতে পারি তাহলে আগামী দিনে আপনাদের কাছে আবার ভোট চাইতে গেলে আপনারা আমাকে সেদিন প্রত্যাখ্যান করবেন। তাই আপনাদের কাছে বিনীত অনুরোধ আগামী ১৬ ই জানুয়ারী ২০২১ ইং আসন্ন  ভেড়ামারা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আমার মশাল মার্কা প্রতীকে আপনাদের মূল্যবান ভোট (সীল) দিয়ে জয়যুক্ত করুন।-আমিন আল্লাহ্ আমাদের সহায় হন। 

Post a Comment

0 Comments