কুমারখালীতে ইটের ভাটায় অবৈধ ট্রলির চাপায় আবার প্রাণ গেলো এক শিশুর

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার অবৈধ ট্রলির চাপায় পিষ্ট হয় প্রাণ গেলো বুজরুক বাখয় গ্রামের নয়ন আলীর ছেলে দ্বীতীয় শ্রেণীর ছাত্র হৃদয়ের।
 উপজেলার শিলাইদহ গ্ৰামে  ইটের ভাটায় চলছে এই সব অবৈধ গাড়ি। সড়কে বাড়ছে দুর্ঘটনায়। ১৭ ডিসেম্বর সকালে সবুজ (১০)  ৩য় শ্রেণির ছাত্র ও হৃদয় (১০) ২য় শ্রেণির ছাত্র দুই জন গুরুতর আহত হয় কালে মোড় নামক স্থানে।  জানা যায় সবুজ ও হৃদয় তারা  তাদের খালার বাড়ি থেকে ফেরার পথে   কইঈ ইটের ভাটার অবৈধ গাড়ি ধাক্কায় গুরুতর আহত  হয় ।  সবুজ জীবনের সাথে লড়াই করে বাচলেও!  মা বাবার ও দুনিয়ার মায়া ত্যাগ করে   বিদায় নিতে হয় হৃদয় কে। হৃদয় এর অকাল মৃত্যু মেনে নিতে পারছে না যেন তার বাবা- মা ।  আর কত প্রান গেলে এই অবৈধ ইটভাটার গাড়ি বন্ধ হবে!?  এরুপ প্রশ্ন হৃদয়ের পাড়া প্রতিবেশীর । তবে কি জীবনের চেয়েও দামি মনে করতে হবে এই অবৈধ গাড়ী গুলো কোন ক্রমেই বন্ধ হচ্ছে না।
রবিউল শেখের ছেলে আজিজুল শেখ (২১)  চাপা দেয় হৃদয় ও সবুজ কে, এই সময় গাড়ি ফেলে রেখে পালিয়ে যায় আজিজুল। আহত শিশুদের নিয়ে কুমারখালী হাসপাতালে নিয়ে আসলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নেয়া হলে, হৃদয়ের  রাজশাহী মেডিকেল  নেবার পথে মারা যায়। এবং সবুজ নামে শিশুটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে তার অবস্থাও আশংকাজনক।
এই ঘটনায় কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: মজিবুর রহমান জানান, সকালে গাড়ি চাপা দেবার পর শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেবার এক পর্যায়ে রাজশাহী নেবার পথে বিকেলের দিকে মারা গেছে। গাড়িটি জব্দ করা হয়েছে এবং চালককে আটকের চেষ্টা করা হচ্ছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হবে।
 

Post a Comment

0 Comments