ভেড়ামারার ১৬ দাগে নকল জুসের ব্যবসা \ এক লক্ষ টাকা অর্থদন্ড

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক \ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার বাহিরচর ইউনিয়নের ১৬ দাগে তৈরি হয় নকল জুস। উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ, বিএসটিআই এর পরিদর্শক, থানার সাব ইন্সপেক্টর সাঈদ হোসেন ও তার ফোর্স নিয়ে অভিযান চালায় । ঠিকানা সঠিক থাকলেও অস্বীকার করে মালিকপক্ষ। বন্ধ তালা খুলে প্রবেশ করা হয়। তৃষনা নামের জুস, ফ্যাক্টরীর ঠিকানা লেখা নেই। ফিল্টার মেশিনে পানির সাথে ঘনচিনি, কাপড়ের ক্ষতিকর রঙ মিশিয়ে ছিপি বন্ধ করা হচ্ছে মেশিনে। সাথে নকল সিল ও ছাপানো ট্যাগ।  নেই তাদের কোন অনুমোদন। বিএসটিআইয়ের সিল তাদের হাতে তৈরি। ঘনচিনি আর কাপড়ের রঙ কিডনির ক্ষতি করে  ও ক্যান্সার রোগে সরাসরি ভূমিকা রাখে তাই এটা নিষিদ্ধ খাবারে,তবুও ব্যবহার করছে তারা। সকল পণ্য জব্দ করে ধ্বংস করা হয়।  মালিক জগলু সরদারকে পাওয়া যায়নি ঘটনাস্থলে,আসার কথা বলে পালিয়ে যায়। তার দুই ছেলেকে ফ্যাক্টরি থেকে আটক করা হয়। বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড ও টেস্টিং ইনস্টিটিউশন আইন ২০১৮ মোতাবেক মালিক জগলু সরদারকে কে ১,০০,০০০( এক লক্ষ) টাকা অর্থদন্ড করা হয়। অর্থদন্ড আদায় সাপেক্ষে তার দুই ছেলেকে ছেড়ে দেয়া হয়। ফ্যাক্টরি বন্ধ করে দেয়।

Post a Comment

0 Comments