ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক \ কুষ্টিয়া শহরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় শাপলা খাতুন নামে এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। বুধবার কুষ্টিয়া শহরের কাস্টম মোড়ের শাপলা ক্লিনিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রোগীর স্বজন ও এলাকাবাসী ক্লিনিক ঘেরাও করে বিক্ষোভ শুরু করলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
কুমারখালী উপজেলার সোন্দা গ্রামের সন্তানসম্ভাবা শাপলা খাতুনকে ওই ক্লিনিকে ভর্তি করা হয় মঙ্গলবার রাতে। পরে ওই রাতেই তার সিজারিয়ান অপারেশন হয়। ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের চাহিদা মত রোগীর স্বজনরা রোগির জন্য রক্ত এনে দেন।
তবে রোগির স্বজনদের অভিযোগ, তাদের সরবরাহ রক্ত না দিয়ে ক্লিনিকের লোকজন ভুল গ্রæপের রক্ত পুশ করে রোগীর শরীরে। এতে রোগীর অবস্থার অবনতি হয়। তিনি মারা যান। এ ঘটনায় রোগীর স্বজন ও এলাকাবাসী ক্লিনিকে বিক্ষোভ দেখায়। পরে পুলিশ এসে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।
কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জুবায়ের হোসেন চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ‘পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষোভকারীদের শান্ত করেছে। সেই সঙ্গে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। দোষী প্রমাণিত হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। প্রাথমিকভাবে ওই ক্লিনিকের মালিক মনিরুল ইসলামকে আটকসহ ওই ক্লিনিকটি সিলগালা করা হয়েছে।’

Post a Comment

0 Comments