কুমারখালীতে অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী কে জোর পূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ


কুমারখালী প্রতিনিধি \ কুষ্টিয়া কুমারখালী চাপড়া ইউনিয়নের সাঁওতা গ্ৰামে সাঁওতা ম্যাধমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির পড়ুয়া স্কুল ছাত্রী (১৪) কে জোরপূর্বক ধর্ষণের শিকার হয়েছে এমন অভিযোগ ধর্ষিতার পরিবারের।ঘটনাটি  ঘটেছে সাঁওতা কারিকর পাড়া মোঃ রকন হোসেনের মেয়ে সরমিলা ।গত (১৪) সেপ্টেম্বর দুপুরে একই এলাকার মাসুদের ছেলে মমিন (২৮) ধর্ষিতার বাড়িতে  একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এমন অভিযোগ ধর্ষিতার বোন উর্মিলা খাতুনের।
উর্মিলা আরো জানান বাড়ি ফাঁকা ছিলো সেই সুযোগে ঘরে ঢুকে আমার বোন কে ধর্ষন করে মমিন।    ধর্ষিতার বান্ধবী কুলসুম বলেন আমরা এক  সঙ্গে বসে গল্প কর ছিলাম এমন সময় উর্মিলা আর আমি  উর্মিলাদের বাড়িতে আসলে। মমিন কে উর্মিলাদের ঘরের ভিতর দেখি। আমাদের দেখে মমিন তখন দৌড়ে পালিয়ে যায়। এই সময় সরমিলা কাঁদতে থাকে সরমিলা, উর্মিলা কে বলে মমিন ভয় দেখিয়ে আমাকে ধর্ষন করেছে। প্রতিবেশী মোঃ মুক্তার হোসেন জানান এই ঘটনার এলাকায় একটি সালিশী ডাক দিলেও মমিন ও তার পরিবার বিষয়টি নিছকই দুর্ঘটনা বলে জানান। ধর্ষিতার পরিবার বিচার না পেয়ে কুমারখালী থানার একটি ধর্ষনের অভিযোগে একটি লিখিত অভিযোগ দেয়। অভিযোগের ভিত্তিতে কুমারখালী থানা পুলিশ ধর্ষিতাকে মেডিকেল চেকআপ জন্য পাঠানো হয়। এই বিষয়ে মমিনের বাড়িতে গিয়ে কাওকে পাওয়া যায় নি, মমিনের ঘরে তালা ঝুলানো।
 কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মজিবুর রহমান বলেন ধর্ষনের লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে- সঙ্গে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এই বিষয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। যার মামলা নং ১৩।

Post a Comment

0 Comments