পরিচালক থেকে অভিনেতা আব্দুল্লাহ আল ফাহিম

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক \ এসময়ের একজন জনপ্রিয় ও উদীয়মান পরিচালক আব্দুল্লাহ আল ফাহিম। তার প্রথম কাজ শর্টফিল্ম "ক্ষুধা" যা তাকে ব্যাপক সফলতা এনে দেয় এবং সকলের কাছে পরিচিত করে তোলে। তারপর একে একে অনেকগুলো শর্টফিল্ম নির্মান করে নিজ প্রযোজনায়। উলেখ্যথ ক্ষুধা ২য় পর্ব, সচেতনা, গুপ্তধন, ফাদ, দ্যা ব্রেক আপ, পথশিশু ও প্রপোজ। এমনি করোনাভাইরাস নিয়েই সে সচেতনমূলক একটি শর্টফিল্ম তৈরি করেন, "কভিড-১৯ করোনাভাইরাস"।  তাছাড়া বিভিন্ন প্রতিবেদন ও নানা ধরনের সচেতনমূলক কাজ তাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরিচিত করে তোলে। এমনি সে ইতিমধ্যে বাংলাদেশের প্রথম এডভেঞ্চার সিনেমা তৈরির ঘোষনা দেয় কিন্তু করোনাভাইরাস এর জন্য আপাতত শুটিং বন্ধ রেখেছে। এব্যাপারে সে বলে, দেশের পরিবেশ ও পরিস্থিতি আগের মত স্বাভাবিক না হলে আমি সিনেমার কাজ নিয়ে আগাবো না। ইতিমধ্যে সে পরিচালক হৃদয় হোসাইনের গল্প ও পরিচালিত নাটক " বিয়ে পাগল গেদু"তে সজল চরিত্রে আবদ্ধ হন। এবং শুটিং এর ভিডিও এক অংশ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সাড়া তোলে। অনেকেই তাকে দক্ষ অভিনেতাদের সাথে তুলনা করছে। এব্যাপারে পরিচালক আব্দুল্লাহ আল ফাহিম বলেন, ক্যামেরার সামনে হোক আর পিছনে হোক কাজ আমার কাছে সব থেকে বড় ব্যাপার, তাই আমি আমার অবস্থান থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করব পরিপূর্ণতা দেবার। সকলের দোয়া ও ভালোবাসা থাকলে আশা করি দর্শকদের জন্য কিছু করতে পারব।

Post a Comment

0 Comments