ভেড়ামারায় মাদক ব্যবসায়ীদের হামলায় হরিজন সম্প্রদায়ের মহিলা সহ আহত-১৪ ॥ গ্রেফতার-১

চেতনায় কুষ্টিয়া প্রতিবেদক ॥  কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ীদের আটকের পর পুলিশ ছেড়ে দেওয়ার পর হরিজন সম্প্রদায়ের উপর সোমবার দুপুরে হামলা চালিয়েছে মাদক ব্যবসায়ীরা। হামলায় মহিলা সহ কমপক্ষে ১৪ জন আহত হয়েছে। তাদের কে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।পরিস্থিতি সামাল দিতে থানা পুলিশ একজন কে আটক করেছে।
হরিজন সম্প্রদায়ের উত্তম এবং সঞ্চয় জানান, ভেড়ামারার বামনপাড়ার হরিজন সম্প্রদায় এলাকায় মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছিল ওই এলাকার বাবলু, শামীম এবং চঞ্চল সহ কয়েকজন। এ বিষয়ে কয়েকদিন আগে হরিজন সম্প্রদায়ের লোকজন বাধা প্রদান করে এবং ভেড়ামারা থানা পুলিশের কাছে অভিযোগ করে। এরই প্রেক্ষিতে গত রবিবার ভেড়ামারা থানা পুলিশ ওই ৩ মাদক ব্যবসায়ী কে আটক করে থানা হেফাজতে নেয়। রাতেই অজ্ঞাত কারনে পুলিশ তাদের ছেড়ে দেয়। সোমবার দুপুরের দিকে হরিজন সম্প্রদায়ের সুজন ভ্যান নিয়ে বামানপাড়ার আজিজ বিড়ি সংলগ্ন মোড়ে গেলে তাকে মারপিট করে এবং ভ্যান টি আটকিয়ে রাখে। এ সংবাদ পেয়ে হরিজন সম্প্রদায়ের লোকজন ঐক্যবদ্ধ হয়ে সুজন কে উদ্ধার এবং ভ্যানটি ছাড়িয়ে নেওয়ার জন্য আসে। এসময় হরিজন সম্প্রদায়ের লোকজনকে দেখেতে পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে রড, হাতুড়ি, হকিষ্টিক দিয়ে তাদের উপর হামলা চালিয়ে বেধড়ক পেটায়। এ সময় মহিলা বাসন্তি (৩০) সহ বিধান (৩৮), রঞ্চিত (৬০), সুশান্ত (৪০), উত্তম (৫৭), আকাশ (২০), সুজন (৪০),বিজয় (৩৫), কুমার (২৩), তপন(১৮), প্রসংজিত (১৫), উৎপল (১৮) মহন (২২), মাখন (৩৫) আহত হয়। খবর পেয়ে ভেড়ামারা পৌর সভার মেয়র আলহাজ্ব শামিমুল ইসলাম ছানা তাৎক্ষনিক ভাবে ঘটনা স্থলে পৌছায় এবং আহতদের কে উদ্ধার করে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ নিয়ে যায়। আহতদের কে সু-চিকিৎসার ব্যাবস্থা করেন এবং গুরুত্বর আহতদের কে ভর্তি করার কথা বলেন।
এ বিষয়ে ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচার্জ নূর হোসেন খন্দকার জানান, হামলার সংবাদ পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে উজ্জল নামের একজন কে আটক করেছি। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে ওরা মাদক ব্যবসায়ী না মাদক খোর তা দেখা হচ্ছে।

Post a Comment

0 Comments