ভেড়ামারায় প্রবাসীদের পরিবারকে সংবর্ধনা ও মেধাবাী ভেড়ামারা ওয়েভ সাইট উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি


জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি বলেছেন বিদেশে পরিশ্রম করে অর্থ পাঠিয়ে যারা দেশের অর্থনীতিকে সচল করে তারাই বাংলাদেশে স্বর্ণ প্রবাসী স্বর্ণ প্রবাসীরা দেশের ভাবমূতি উজ্জল করেছে। এই স্বর্ণ প্রবাসীরাই দেশের জন্য বেশির ভাগ আয় করে থাকে। বিদেশে যারা শ্রমজীবী, তারা হলো স্বর্ণ প্রবাসী। আজ থেকে কুষ্টিয়া জেলায় যারা প্রবাসী তাদের আর প্রবাসী বলবো না, স্বর্ণ প্রবাসী বলবো। শনিবার দুপুর ১২টার সময় কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে প্রবাসীদের পরিবারের সাথে মতবিনিময়,সংবর্ধনা ও মেধাবাী ভেড়ামারার ওয়েভ সাইট উদ্বোধন কালে প্রধান অতিথি হিসাবে একথা বলেন।
তথ্যমন্ত্রী জাতিসংঘ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নকে উদ্দেশ্য করে বলেন, যারা আজকে যুদ্ধাপরাধী সর্ম্পকে ওকালতি করছেন সেই বিদেশি বন্ধুরা, আপনাদের যদি এতো দরদ থাকে আগুন সন্ত্রাসে যখন মানুষ পুড়ছিল, সেইসব নেতা নেত্রীর বিরুদ্ধে তখন মুখ বন্ধ করে ছিলেন কেন? জনগণের উদ্দেশ্যে তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, জাতিসংঘ যাই বলুক আপনারা ভয় পাবেন না। বাংলাদেশের মানুষের বিরুদ্ধে যারা অপরাধ করেছে তাদের যদি মৃত্যুদন্ড সাজা হয়, সেই মৃত্যুদন্ড কার্যকর হবে। তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু আরো বলেন, অনেকেই বলেছেন যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি দিলে সৌদি প্রবাসী বাঙ্গালিরা থাকতে পারবে না। কিন্তু সব আশংকা মিথ্যা প্রমাণ করে সরকার লক্ষ লক্ষ প্রবাসীর আকামার ব্যবস্থা করে দিয়েছে। কাদের মোল্লার ফাঁসি হয়েছে কিন্তু সৌদি থেকে একটা বাঙ্গালিরও চাকরী যায়নি।  
খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে এখনো সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড অব্যাহত আছে। তার এই ঘরে ফেরা গণতন্ত্রে ফেরা নয়। সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অনেকেই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডকে হালাল করার পথ হিসেবে ব্যবহার করছেন।’ মানুষ পুড়িয়ে হত্যার মামলা থেকে উনি রেহাই পাবেন না। বাংলাদেশের রাজনীতিতে আগুন সন্ত্রাসীরা থাকবে না। ১৩০ জনের বেশী মানুষ আগুনে পুড়ে মারা গেছেন। এর প্রত্যেকটা খুন খালেদা জিয়ার নির্দেশে হয়েছে। খালেদা জিয়ার নামে এই ১৩০টির বেশী খুনের মামলা তৈরি হচ্ছে। এ সব মামলায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও আদালত তাদের কাজ করবেন। খালেদা জিয়া কোনো মামলা থেকেই রেহাই পাচ্ছেন না।’
মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের বিচার প্রক্রিয়া আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী হয়নি উল্লেখ করে মৃত্যুদণ্ড স্থগিতের ব্যাপারে আহ্বান জানানো নিয়ে জাতিসংঘকে উদ্দেশ্য করে তথ্যমন্ত্রী ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি বলেছেন, ‘মেকি দরদ বাদ দিন, আমার দেশ কিভাবে গড়বো, আমাকে ভাবতে দিন। আমরা ভাববো, আমাদের ভাগ্য আমরা গড়বো। বিদেশিদের কোন নাক গলানো সহ্য করবো না। শেখ হাসিনার সরকার শক্তিশালী সরকার। অপরাধীদের ফাঁসি কার্যকর হবে।’
ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শান্তি মনি চাকমার সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) এর সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি’র সহধর্মিনী ও কেন্দ্রীয় নারী জোটের আহবায়ক আফরোজা হক রিনা, কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক সৈয়দ বেলাল হোসেন, পুলিশ সুপার প্রলয় চিসিম, ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাডঃ তৌহিদুল ইসলাম আলম, কুষ্টিয়া জেলা জাসদের সাধারন সম্পাদক আব্দুল আলিম স্বপন, ভেড়ামারা পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব শামিমুল ইসলাম ছানা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী আক্তারুজ্জামান মিঠু, ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, ভেড়ামারা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ শামছুল বারী, ভেড়ামারা প্রেস ক্লাবের সভাপতি ও  সাপ্তাহিক চেতনায় কুষ্টিয়া পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক প্রভাষক জাহাঙ্গীর হোসেন জুয়েল, ভেড়ামারা উপজেলা মাধ্যামিক শিক্ষা অফিসার জুলফিকার হায়দার প্রমুখ। পরে তথ্যমন্ত্রী প্রবাসী মেধাবীদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন।

Post a Comment

0 Comments