সাংবাদিক পিন’ুর উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে # ভেড়ামারা প্রেসক্লাবে সর্বস্তুরের সাংবাদিকদের প্রতিবাদ সমাবেশ ॥ স্মারকলিপি, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ সহ কঠোর কর্মসূচীর ঘোষনা


কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য ও এনটিভির স্টাফ করেসপনডেন্ট ফারুক আহমেদ পিনুর উপর হামলা ও তাকে বহনকারী মটরসাইকেল ছিনতাইয়ের প্রতিবাদে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় ভেড়ামারা প্রেসক্লােেবর হলরুমে সর্বস্তরের সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্টিত হয়েছে।  ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাপ্তাহিক চেতনায় কুষ্টিয়া পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক প্রভাষক জাহাঙ্গীর হোসেন জুয়েল’র সভাপতিত্বে
অনুষ্ঠিত গতকালকের সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক ও দৈনিক হিসনাবাণী পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক আরিফুজ্জামান লিপটন, সহ-সভাপতি আনোয়ার পারভেজ শান্ত, রুহুল আমীন, যুগ্ম সম্পাদক সেলিম মাহমুদ, হেলাল মজুমদার, রাহাত রাজা,  সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ সরকার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কামরুজ্জামান টুটুল, সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাফিজুর রহমান হাফিজ, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফিরোজ মাহমুদ, নির্বাহী সদস্য ডাঃ একে এম কাওছার হোসেন, হাজী আনছারুল হক, রফিকুল ইসলাম দীপু খাঁন, তারিকুজ্জামান তারিক, ওয়ালিউল ইসলাম ওলি, আব্দুল আলিম, মনোয়ার হোসেন মারুফ, কামরুল ইসলাম মনা, গৌতম সরকার, এহসানুল হক সুমন, এসএম আবু ওবাইদুল আল মাহাদী, হৃদয় রায়হান,  শরিফুল আজম বাবুল ও মহন ইসলাম প্রমূখ। সভায় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ অত্যান্ত কঠোর ভাষায় সাংবাদিক ফারুক আহমেদ পিনুর উপর হামলা ও তার মটর সাইকেল ছিনতাইয়ের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ-ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ করেন। নেতৃবৃন্দ অনতিবিলম্বে ঘটনার সাথে জড়িত দূবৃত্তদের গ্রেফতারে স্থানীয় পুলিশ ব্যর্থ হলে আগামীতে কঠোর কর্মসূচী পালনের ঘোষনা দেন। আজ সোমবার সকাল ১১টায় ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহোদয়কে স্মারকলিপি প্রদান করা হবে। আগামী বুধবার সকালে প্রেসক্লাবের সামনে শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হবে। উল্লেখ্য গত শনিবার রাতে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য ও এনটিভির স্টাফ করেসপনডেন্ট ফারুক আহমেদ পিনু তার গ্রামের বাড়ি মোকারিমপুর ইউনিয়নের মহারাজপুর গ্রামে মটরসাইকেল যোগে যাওয়ার পথে একদল মুখোশধারী সন্ত্রাসী পিনুর মটরসাইকেলের গতিরোধ করে এবং তাকে বেপরোয়া ভাবে মারপিট করে মারাতœক রক্তাক্ত আহত করে। সন্ত্রাসীরা পিনুর হাতের আঙ্গুল সহ শরীরের অন্যান্য বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত সহ তাকে রাস্তার উপর ফেলে বুকের উপরে লাথি মারে। এক পর্যায়ে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিত ভাবে রেললাইনের উপর নিয়ে গিয়ে হাত পা বেধে সেখানে আটকে রাখে। সাংবাদিক পরিচয় পাওয়ার পর দূর্বৃত্তরা তাকে গুলি করে মেরে ফেলতে উদ্যত হয়। ভাগ্যক্রমে সেখানে টহল পুলিশ উপস্থিত হয়ে সাংবাদিক ফারুক আহমেদ পিনুকে উদ্ধার করে প্রথমে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরবর্তীতে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। এই প্রতিবেদন লেখাবধি কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছিল।

Post a Comment

0 Comments