পিনু’র উপর হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে ভেড়ামারা প্রেসক্লাবে’র উদ্যোগে মানববন্ধন-সমাবেশ ও মহাসড়ক অবরোধ



কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য ও এনটিভির স্টাফ করেসপনডেন্ট ফারুক আহমেদ পিনুর উপর সন্ত্রাসীদের হামলা ও তাকে বহনকারী মটর সাইকেল ছিনতাইয়ের প্রতিবাদ ও আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবীতে ভেড়ামারা প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে গতকাল বুধবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্ষন্ত প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশ এবং কুষ্টিয়া-দৌলতপুর মহাসড়ক ২ ঘন্টা অবরুদ্ধ রাখা হয়। এ মানববন্ধন সামাবেশ ও অবরোধ কর্মসূচিতে ভেড়ামারা ও কুষ্টিয়ার জেলার সর্বস্তরের গণমাধ্যমকর্মী, রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব ও পেশাজীবি নেতৃবৃন্দ অংশ করেন। মানববন্ধনে হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও হামলাকারী সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানানো হয়।
ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাপ্তাহিক চেতনায় কুষ্টিয়া পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক প্রভাষক জাহাঙ্গীর হোসেন জুয়েলের সভাপতিত্ব
সাধারন সম্পাদক ও দৈনিক হিসনাবাণী পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক আরিফুজ্জামান লিপটনের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিকদল জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটি’র অন্যতম নেতা ও কুষ্টিয়া জেলা জাসদের সাধারন সম্পাদক আব্দুল আলিম স্বপন, ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও কুষ্টিয়া জেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক, ভেড়ামারা উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক এ্যাডঃ তৌহিদুল ইসলাম আলম, ভেড়ামারা পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব শামিমুল ইসলাম, সিনিয়র সহ-সভাপতি হাজী আকতারুজ্জামান মিঠু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, রেল বাজার বনিক সমিতি’র সাধারন সম্পাদক আবু দাউদ, উপজেলা জাসদের সাধারন সম্পাদক এসএম আনছার আলী, জেলা ঘাতক দালাল নির্মল কমিটি’র সাধারন সম্পাদক অসিত কুমার সিংহ রায়, বিএনপি নেতা আবু মোহাম্মদ নুর উদ্দিন নুরু, কুষ্টিয়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি রাশেদুল ইসলাম বিপ্লব, মাইটিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি আব্দুর রাজ্জাক বাচ্চু, দৈনিক কুষ্টিয়া পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মজিবুল শেখ, দৈনিক স্বর্নযুগ পত্রিকার সম্পাদক জামিল হাসান খোকন, বাহাদুরপুর ইউপি চেয়ারম্যান সোহেল রানা পবন, উপজেলা আওয়ামী লীগ অন্যতম নেতা সৈয়দ রহমান, নজরুল ইসলাম নজু, নজরুল ইসলাম, মাশরেকুল ইসলাম রোজন, আনোয়ার হোসেন গামা, আলী হাসান সনি, জেলা জাসদের কৃষি বিষয়ক সম্পদক বুলবুল কবির, মোকারিমপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বেনজির আহমেদ বেনু, রেজাউল করিম রেজা, আরমান হোসেন, হাসান বিন মাহমুদ ঝন্টু, আবু হেনা মোস্তাফা কামাল বকুল, বিএনপি নেতা, শফিকুল ইসলাম ডাবলু, শামিম রেজা, আনোয়ারুল আজিম বাবু, বদরুজ্জামান বাদল, আবুল কালাম আজাদ. মহাসিন রেজা, আমজাদ হোসেন.টোকন, জাতীয় পাটির নেতা আমিনুল ইসলাম পিন্টু, রবি, রাসেল, ভেড়ামারা পৌরসভার প্যানেল মেয়র আলহাজ্ব মাহাবুব আলম বিশ্বাস, ২ নং প্যানেল মেয়র খসরুজ্জামান ফারুক, কাউন্সিলর আমিনূর রহমান, নাইমুল হক, সোলাইমান মাষ্টার, ভেড়ামারা মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক রাজা, প্রধান শিক্ষক আঃ জব্বার, মুজিবুর রহমান সান্টু, রফিকুল ইসলাম, আঃ হাই সিদ্দিকী, ডাঃ টিএকামলী, সাজেদুল ইসলাম, ফয়জুল ইসলাম মিলন, ভেড়ামারা প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি আনোয়ার পারভেজ শান্ত, রুহুল আমীন, যুগ্ম সম্পাদক সেলিম মাহমুদ, হেলাল মজুমদার, রাহাত রাজা,  কোষাদক্ষ্য আলাল উদ্দিন নয়ন, দপ্তর সম্পাদক মিটু মৃধা, ধর্মীয় সম্পাদক মাসুদ করিম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কামরুজ্জামান টুটুল, সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাফিজুর রহমান হাফিজ, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফিরোজ মাহমুদ, নির্বাহী সদস্য ডাঃ একে এম কাওছার হোসেন, অধ্যাপক আমিরুল ইসলাম,হাজী আনছারুল হক, রফিকুল ইসলাম দীপু খাঁন, তারিকুজ্জামান তারিক, জাকির হোসেন বুলবুল, ওয়ালিউল ইসলাম ওলি, আব্দুল আলিম, মনোয়ার হোসেন মারুফ, কামরুল ইসলাম মনা, গৌতম সরকার, এহসানুল হক সুমন, এসএম আবু ওবাইদুল আল মাহাদী, হৃদয় রায়হান,  বাবুল আক্তার, শরিফুল আজম বাবুল ও মহন ইসলাম প্রমূখ।
উল্লেখ্য, ১৩ সেপ্টেন্বর শনিবার রাতে অসুস্থ বাবাকে দেখতে সাংবাদিক ফারুক আহমেদ পিনু, খালাতো ভাই মনোয়ার হোসেন ও প্রতিবেশী মনিরুল ইসলামকে নিয়ে ভেড়ামারা শহর থেকে মোটরসাইকেলযোগে গ্রামের বাড়ি মহারাজপুর যাওয়ার সময় বাঁকাপোল নামক স্থানে পূর্ব থেকেই রাস্তার উপর ডাকাত দলের বেঁধে রাখা তারে জড়িয়ে তিনজনই ছিটকে পড়েন। এ সময় ৮-১০ জনের একটি সংঘবদ্ধ সশস্ত্র সন্ত্রাসী তাদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে পাশের রেললাইনের উপর নিয়ে হাত-পা ও মুখ বেঁধে নির্মম নির্যাতন চালায়। সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে ডাকাত দলের সদস্যরা হত্যার উদ্দেশে পিনু’র শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর জখম ও আঘাত করে রেললাইনের উপর বেঁধে রেখে মোটরসাইকেল, নগদ ৩০ হাজার টাকা, ৩টি মোবাইল ফোন ও একটি স্বর্ণের আংটি লুট করে পালিয়ে যায়। পরে গভীর রাতে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।
ইতিপূর্বে ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাপ্তাহিক চেতনায় কুষ্টিয়া পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক প্রভাষক জাহাঙ্গীর হোসেন জুয়েল, সাধারন সম্পাদক ও দৈনিক হিসনাবাণী পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক আরিফুজ্জামান লিপটনসহ সর্বস্তরের সাংবাদিকদের উপস্থিতে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক সৈয়দ বেলাল হোসেন ও ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শান্তি মনি চাকমা এর মাধ্যামে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবর পৃথক ২টি স্মারকলিপি প্রদান করেন।

Post a Comment

0 Comments